দাউদ ইব্রাহিম আত্নসমর্পণ করতে চেয়েছিল।


শনিবার,০২/০৫/২০১৫
120

 খবরইন্ডিয়াঅনলাইনঃ  মুম্বই বিস্ফোরণের পর আত্মসমর্পণ করতে চেয়েছিল ভারতের মোস্ট ওয়ান্ডেট ডন দাউদ ইব্রাহিম? অন্তত এমনটাই দাবি সিবিআইয়ের প্রাক্তন ডিআইজি আধিকারিক নীরজ কুমারের। তিনি এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ১৯৯৩ সালের ভয়াবহ বিস্ফোরণের ১৫ মাস পর দাউদ আত্মসমর্পণ করতে চেয়েছিল। এমনকী সেজন্য সে তৎকালীন সিবিআই ডিআইজি নীরজ কুমারের সঙ্গে কথাও বলে। এইচটি মিডিয়ায় প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী ১৯৯৪ সালের জুন মাসে দাউদ নিজে নীরজ কুমারের সঙ্গে কথা বলে। তবে সে কিছু শর্ত দিয়েছিল যেগুলি শুনে তা পত্রপাট খারিজ করে দেয় সিবিআই। এরপর থেকে তাকে আর ধরা যায়নি। রিপোর্টে প্রকাশিত হয়েছে, যেখানে নীরজ কুমার বলছেন, “দাউদ আত্মসমর্পণ করতে চেয়েছিল তবে ভারতে ফিরলে ওর বিরোধী গোষ্ঠী ওকে মেরে ফেলতে পারে বলে ও চিন্তিত ছিল।” দাউদ নিরাপত্তা চেয়েছিল বলেও জানিয়েছেন নীরজ কুমার। দাউদের সঙ্গে তিনবার কথা বলা নীরজ কুমার ১২ মার্চ ১৯৯৩ সালে মুম্বই বিস্ফোরণের মামলার দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ২০১৩ সালের জুলাইয়ে তিনি দিল্লি পুলিশ কমিশনার হিসাবে অবসর নেন। এর আগে রাম জেঠমালানিও একইরকম দাবি জানিয়ে বলেছিলেন যে, দাউদ তাঁকে ফোন করে আত্মসমর্পণ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিল। প্রসঙ্গত, গতবছর ভারতের পক্ষ থেকে ১৯৯৩ সালের মুম্বই বিস্ফোরণে দাউদের জড়িত থাকার প্রচুর প্রমাণ পাকিস্তানের হাতে দিয়ে তাকে প্রত্যর্পণের দাবি জানানো হয়।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট