আমার মা-আমার ভালবাসা


বুধবার,০৬/০৫/২০১৫
295

সুমাইয়া বরকতউল্লাহ্
বিশ্ব মা দিবস। আমি এই দিনটির অপেক্ষায় থাকি। কারণ এ দিনটা আমার জীবনের
সবচেয়ে মূল্যবান আর প্রিয় একটা দিন। আমার মা এ দুনিয়ার শ্রেষ্ঠ মা। এ
দিনটাও আমার মায়ের জন্য আমার কাছে সেরা। আমার মায়ের জন্য আমার যেমন মায়া
লাগে এই দিনটার জন্যও আমার খুব মায়া লাগে।

পৃথিবীতে সবচেয়ে আপন কে? এক কথায় এর জবাব হলো-মা। মায়ের চেয়ে আপন কেউ
নেই। আর কেউ মায়ের চেয়ে আপন হতেও পারে না।

আমি আমার মাকে কতটুকু ভালবাসি এ কথা আমি কোনোদিন প্রকাশ করতে পারব না। আর
যদি প্রকাশ করতে পারতাম তাহলে আমি আমার মাকে ভালবাসার কথা গোপন করে
রাখতাম। কাউকে বলতাম না। ইশ, আমার ভালবাসা দেখে যদি আর কেউ তার মাকে আমার
চেয়ে বেশি ভালবেসে ফেলে, তখন?

আমি গোপনে গোপনে কাঠ পেন্সিলে মায়ের ছবি এঁকে রেখেছি আর ছবির নিচে মাকে
নিয়ে একটা কবিতা লিখে রেখেছি। মায়ের জন্য গোপনে চকোলেট, চিরুনী আর ’মা’
লেখা একটা ব্রেসলেট কিনে রেপিং পেপারে প্যাকেট করে রেখেছি। মা দিবসে মার
সামনে গিয়ে বলবো, মা চোখ বন্ধ করো। মা চোখ বন্ধ করবে। তারপর পট করে মার
হাতে দেবো উপহার। মা প্যাকেটটা পেয়ে অনেক খুশি হয়ে যাবে। তারপর আমি মার
ছবিটা ধরে সামনে দাঁড়াবো। বলব, মা ধীরে ধীরে চোখ মেলো। মা চোখ মেলে অবাক
হয়ে যাবে। তারপর দেখবে ছবির নিচে মাকে নিয়ে আমার লেখা কবিতাটি:
”মাগো, তোমার মতো এতো আপন দুনিয়াতে নাই
তোমার ছোঁয়া পেলে আমি দুঃখ ভুলে যাই
তুমি আমার লক্ষ্মীসোনা আমার চোখের মণি
তোমার বুকে আছে আমার ভালবাসার খনি।”
আমি মা দিবসে মাকে নিয়ে এমনি শতশত আনন্দ উৎসব করব। মা ক্লান্ত হয়ে বলবে,
আর কতো, আর কতো। তখন আমি বলবো, তুমি যে আমাকে সারাদিন অতো অতো ভালবাস,
তখন কি আমি বলেছি, আর কতো আর কতো?

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট