রনি চক্রবর্তীর অস্বাভিক মৃত্যু


শনিবার,১৬/০৫/২০১৫
339

 খবরইন্ডিয়াঅনলাইনঃ    অভিনেতা রনি চক্রবর্তীর রহস্যমৃত্যুতে চাঞ্চল্য ছড়াল। তাঁরই বাড়ির সামনের একটি পুকুরে মিলল রনির দেহ। পুকুরের সামনে থেকে উদ্ধার হয়েছে তাঁর বাইকও। কিন্তু কীভাবে মৃত্যু হয়েছে রনির সে বিষয়ে এখনও জানা যায়নি। পরিবারের দাবি ভাল সাঁতার জানতেন রনি। তাহলে কী করে রনির মৃত্যু হল এই নিয়েই রহস্য ক্রমশ ঘণীভূত হচ্ছে।  রনির বাবা জানিয়েছেন, শুক্রবার জিমে যায় রনি। সেখানে থেকে কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে রাত ১ টা নাগাদ সাঁতার কাটতে যায়।  বেশ কিছুক্ষণ পর রনির এক বন্ধু এসে বাড়িতে রনির মৃত্যুর খবর দেয়। খবর পেয়ে তাড়াতাড়ি ছুটে যান রনির বাবা। সেখানে গিয়ে রনির বাইক মোবাইল ফোন ঘড়ি দেখতে পান। তবে তাঁর কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। এরপর পুলিশে খবর দিলে ডুবুরি নামিয়ে উদ্ধার করা হয় রনির মৃতদেহ। রনির বন্ধুদের কথায়, একসঙ্গে সাঁতার কাটতে নামলেও কিছুক্ষণ পরে আর দেখতে পাওয়া যাচ্ছিল না রনিকে। সাঁতার কাটতে কাটতে অনেকটা দূর চলে যান তিনি। পুকুরের অন্যপ্রান্তের কাছ থেকে রনির দেহ উদ্ধার হয়েছে। রনির বাবার মতে জলে নামার পর হয়তো হৃদরোগে আক্রান্ত হয় রনি। সেই কারণেই আর পারে উঠতে পারেনি। নয়তো খুব ভাল সাঁতার জানত সে। ৩ বছর বয়স থেকে সাঁতার শিখেছে। তবে, রনির মৃত্যুর পিছনে অন্য কোনও রহস্য আছে কি না তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ। কেনই বা ওই সময়ে সাঁতার কাটতে নেমেছিলেন রনি তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। সাঁতার জানলে কীভাবেই বা জলে মৃত্যু হতে পারে তা নিয়ে ঘণীভূত হচ্ছে রহস্য। তবে রনির উচ্ছৃঙ্খল জীবনযাত্রাকেও এর জন্য দায়ী করছেন টলিউডের একাংশ। টেলিভিশনের জনপ্রিয় মুখ রনি। সম্প্রতি ‘বয়েই গেল’ ধারাবাহিকে কাজ করতেন তিনি। সিরিয়ালের কাজ শেষ করে জলনুপুর ধারাবাহিকে লালের চরিত্রে অভিনয় করছিলেন তিনি। হাতে আরও কিছু কাজও ছিল। রনির এভাবে অস্বাভাবিক মৃত্যুতে শোকের ছায়া টলিউডে। মাদকের নেশাও করতেন বলে জানা গিয়েছে। অনেকে মনে করছেন মাদকাসক্ত অবস্থাতেই তিনি মধ্যরাতে পুকুরে নামেন। সেই কারণেই এই দুর্ঘটনা। আজ ময়নাতদন্ত হওয়ার পর মৃত্যর কারণ জানা যাবে.

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট