নকল করতে বাঁধা দেওয়ায় অধ্যক্ষের বাড়িতে হামলা চালাল একদল উন্মত্ত ছাত্র। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জে


বুধবার,১০/০৬/২০১৫
265

বিকাশ সাহাঃ    নকল করতে বাঁধা দেওয়ায় অধ্যক্ষের বাড়িতে হামলা চালাল একদল উন্মত্ত ছাত্র। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জে। কালিয়াগঞ্জ কলেজের ছাত্রদের পরীক্ষার সিট পড়েছিল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বুনিয়াদপুর কলেজে। বুনিয়াদপুর কলেজের অধ্যক্ষের বাড়ি কালিয়াগঞ্জের উত্তর চিরাইলপাড়া এলাকায়। কালিয়াগঞ্জ কলেজ থেকে অধ্যক্ষের বাড়ির দূরত্ব প্রায় ৫০০ থেকে ৭০০ মিটারের মধ্যে। অধ্যক্ষের পড়িবার সুত্রের খবর, বুনিয়াদপুর কলেজের অধ্যক্ষ জীতেশ চাকী একজন দক্ষ প্রশাসক। ফলে পরীক্ষার সময় বুনিয়াদপুর কলেজের অধ্যক্ষ নকল রুখতে কড়া পদক্ষেপ নেন। যার জেরে এর আগেও একবার ভাঙচুরের মতো ঘটনা ঘটেছিল অধ্যক্ষের বাড়িতে। এদিন বুধবার কালিয়াগঞ্জ কলেজের ছাত্ররা বুনিয়াদপুর কলেজে প্রথমার্ধে বিএ পার্ট ওয়ানের দর্শন পরীক্ষা দিয়েছিল। পরীক্ষা শেষ হওয়ার প্রায় ঘণ্টা দেড়েক পরেই অধ্যক্ষের বাড়িতে হামলা হওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে কালিয়াগঞ্জে।
এদিন বুধবার বেলা তিনটে নাগাত ১৫ জনের একটি দল মুখে রুমাল বাঁধা অবস্থায় অধ্যক্ষ জীতেশ বাবুর বাড়ির সামনে জড় হয়ে বাড়ির কাঁচের জানালায় এলোপাথাড়ি পাথর ছুড়তে থাকে। পাড়া প্রতিবেশীরা বাইরে বেড়িয়ে এলে দৌড়ে পালিয়ে যায় তাঁরা। যারা এই হামলার সাথে জড়িত, তাদের পিঠে ব্যাগ দেখে এলাকাবাসীদের ধারনা এরা সবাই কলেজ ছাত্র।
বাড়ি ভাঙচুরে সময় অধ্যক্ষের স্ত্রী চন্দনা চাকী সে সময় বাড়িতে একাই ছিলেন। ভীত সন্ত্রস্ত্র চন্দনা দেবী থানায় খবর দিলে কালিয়াগঞ্জ থানার আইসি শ্রীমন্ত বন্ধোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে ছুটে আসে।
ভাঙচুরের ঘটনার খবর পেয়ে কালিয়াগঞ্জ কলেজের জি এস কপিল সিং জীতেশ চাকীর বাড়িতে আসে। তিনি বলেন, কালিয়াগঞ্জ কলেজের তৃনমূল ছাত্র পরিষদ পরিচালিত ছাত্র সংসদের সদস্য এমনকি তৃনমূল ছাত্র পরিষদের কোনও সদস্য এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নেই। আমরা চাই যারা এই জঘন্যতম কাজ করেছে তাদের উপযুক্ত শাস্তি হোক।
কালিয়াগঞ্জ কলেজের অধ্যক্ষ জীতেশ চাকী বলেন, বুনিয়াদপুর কলেজে কালিয়াগঞ্জ কলেজের ছাত্ররা পরীক্ষা দিচ্ছে। নকল করতে গেলে আমরা কঠোর হাতে তা দমন করি। কালিয়াগঞ্জ কলেজের ছাত্ররা শুধু নকল করার চেষ্টা করে এমনটা নয়। পরীক্ষার ঘরে নকল করতে না পেরে তারা তাদের পকেট থেকে নকল বের করে গোটা কলেজ ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে দেয়। এমনকি বিভিন্ন সময় শিক্ষকদের মুখের উপরে নকল ছুড়ে দেয় তারা। এছাড়াও বাড়ি যাবার সময় বাসের উপর থেকে শিক্ষকদের গাড়িতে নকল ছুড়ে ফেলে এই সকল ছাত্ররা। পরীক্ষার প্রথম দিন থেকে চূড়ান্ত অসভ্যতা শুরু করেছে এরা।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট