শেষ ম্যাচ জিতে মুখ রক্ষা একদিনের সিরিজে


বুধবার,২৪/০৬/২০১৫
424

  খবরইন্ডিয়াঅনলাইনঃ    ৭৭ রানে ম্যাচ জিতেছে ভারত। ভারতের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটা তাই ২-১ ব্যবধানেই জিতেছে মাশরাফিরা। তাই সম্ভাবনা জাগিয়েও মিটলনা জাতির চাওয়া, সম্ভব হল না ভারতকে বাংলাধোলাই করা।

ভারতের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে বাংলাদেশের জয়ের টার্গেট ৩১৮ রান। লক্ষ্য তাড়া করতে ব্যাটিং করছে স্বাগতিকরা। তবে ২১৬ রানের মধ্যে ৮ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে মাশরাফি বাহিনী। ৩৯.১ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৭ উইকেট হারিয়ে ২১৬ রান।

সর্বশেষ আউট হয়েছেন নাসির হোসেন (৩২)। এর আগে,অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা, সাব্বির রহমান (৪৩), সাকিব আল হাসান (২০), লিটন কুমার দাস (৩৪), মুশফিকুর রহিম (২৪), সৌম্য সরকার (৪০ রান) ও তামিম ইকবাল (৫) আউট হয়ে সাজঘরে ফিরে গেছেন।

বুধবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছে দুই দল। আগে ব্যাটিং করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ৩১৭ রান সংগ্রহ করেছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। সর্বোচ্চ ৭৫ রান করেছেন শেখর ধাওয়ান। এ ছাড়া অধিনায়ক ধোনি ৬৯ এবং আমবতি রাইডু ৪৪ রান করেছেন। বাংলাদেশের পক্ষে ৩টি উইকেট নিয়েছেন মাশরাফি। এ ছাড়া মুস্তাফিজুর রহমান ২টি ও সাকিব আল হাসান ১টি উইকেট নিয়েছেন।

দিবারাত্রির ম্যাচটি শুরু হয়েছে বেলা ৩টায়। প্রথম দুই ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যে সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে বাংলাদেশ। অতিথি ভারতকে ‘বাংলাধোলাই’ করার মিশন নিয়ে মাঠে নেমেছে ।

টস জিতে ম্যাচে আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি। ভারতীয়রা এ দিন বেশ সতর্কতার সঙ্গে ব্যাটিং শুরু করেছে। এর মধ্যেও দলীয় ৩৯ রানে ভারতের ব্যাটিং লাইনে প্রথম আঘাত হেনেছেন বাংলাদেশের বোলিং বিস্ময় মুস্তাফিজুর রহমান। খেলার সপ্তম ওভারে মুস্তাফিজের বলে লিটনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে গেছেন রোহিত শর্মা (২৯)।

এরপরও ধাওয়ান-কোহলি জুটি সামনে হাঁটছিল ঠিকভাবেই। তখনই দ্বিতীয় আঘাত হেনেছেন বাংলাদেশের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ২০তম ওভারের ৫ম বলে দলীয় ১১৪ রানে বিরাট কোহলিকে (২৫) পরিষ্কার বোল্ড করে মাঠ ছাড়া করেছেন তিনি।

কোহলি ফিরে গেলে শেখর ধাওয়ানের সঙ্গী হয়েছেন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। তখনই মাশরাফির হানা। দলীয় ১৫৮ রানে মাশরাফির বলে নাসিরের দুর্দান্ত এক ক্যাচে ৭৫ রান করা শেখর ধাওয়ান ফিরেছেন সাজঘরে। ৭৩ বল থেকে ১০টি চারের মারে এই রান করেছেন তিনি।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে ধোনি রাইডু হয়ে ওঠেছিলেন ভয়ঙ্করা। ৯৩ রান তোলা সেই জুটিতেও ভাঙন ধরিয়েছেন মাশরাফি। এ সময় ভারতীয় ব্যাটিং লাইনে পরপর দুটি কাঙ্ক্ষিত ব্রেক থ্রু এনে দিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। ব্যক্তিগত ৪৪ রানে আম্বাতি রাইডুকে সাজঘরে ফেরানোর স্বল্প সময়ের মধ্যেই অধিনায়ক ধোনিকেও ফিরিয়েছেন তিনি। ৬৯ রান করে মুস্তাফিজের হাতে ধরা পড়েছেন ধোনি।

ভারতের ষষ্ঠ উইকেটটিও নিয়েছেন মুস্তাফিজ। রোহিতকে দিয়ে শুরু করেছিলেন আর শেষ করেছেন রায়নাকে দিয়ে। ২১ বল থেকে ৩৮ রান করা রায়নাকে বোল্ড করেছেন তিনি।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট