মদ্যপ অবস্থায় বিদ্যালয়ে আসার অভিযোগ উঠলো কালিয়াগঞ্জের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে


শনিবার,১১/০৭/২০১৫
264

বিকাশ সাহাঃ    মদ্যপ অবস্থায় বিদ্যালয়ে এসে ছাত্র ছাত্রীদের দিয়ে শরীর মালিশ করিয়ে নেওয়ার মতো গুরুতর অভিযোগ উঠলো এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। সেই সঙ্গে বিদ্যালয়ের পঠনপাঠনের মান শিকেই ওঠার অভিযোগ এনে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জের রাতন নিম্ন বুনিয়াদী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দিলেন অভিভাবকরা। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে স্কুল চত্বরে। অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম জ্যোতিষ চন্দ্র দেবশর্মা। অভিভাবকদের অভিযোগ অভিযুক্ত শিক্ষক জ্যোতিষ চন্দ্র দেবশর্মা মদ্যপ অবস্থায় বিদ্যালয়ে এসে বিছানা করে ঘুমিয়ে থাকেন তার উপর ছাত্র ছাত্রীদের দিয়ে নিজের শরীরে তেল মালিশ করিয়ে নেন। অভিযুক্ত ঐ শিক্ষকের উপর বিদ্যালয় বন্ধ করার দায়িত্ব পড়লে তিনি নেশার ঘোরে ঘরের দরজা লাগাতে পর্যন্ত ভুলে যান। যার ফলে বিদ্যালয় থেকে খোয়া গিয়েছে একটি ফ্যান। অভিভাবকদের আরও অভিযোগ চারজন শিক্ষক শিক্ষিকা বিদ্যালয়ে থাকেলেও তাঁরা নিজেদের খুশিমতো বিদ্যালয়ে আসেন আবার যখন তখন বেড়িয়ে যান। মিড ডে মিল ঠিকমত হয়না। বিদ্যালয়ে ৯২ জন ছাত্র ছাত্রী থাকলেও বিগত দিনের তুলনায় তা দিন দিন কমে যাচ্ছে। বিদ্যালয়ে তালা লাগিয়ে অভিভাবকদের বিক্ষোব চলাকালীন হটাত করে অভিযুক্ত শিক্ষক জ্যোতিষ বাবু হাতুড়ি নিয়ে এসে তালা ভাঙলে ক্ষোভে ফেটে পড়েন গ্রামবাসীরা।
মদ্যপ অবস্থায় শিক্ষকের বিদ্যালয়ে আসার অভিযোগ সহ অভিভাবকদের অন্যান্য অভিযোগ গুলিও অস্বীকার করেন রাতন নিম্ন বুনিয়াদী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক গৌরাঙ্গ রায়।RSCN7246

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট