বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এপিজে কালাম চির নিদ্রায় গেলেন


বৃহস্পতিবার,৩০/০৭/২০১৫
115

 খবরইন্ডিয়াঅনলাইনঃ   তামিলনড়ুর রামেশ্বরামে পেইকারুম্বু’র পাবলিক গ্রাউন্ডে চির নিদ্রায় শায়িত হলেন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি সদ্যপ্রয়াত ড. এপিজে আবদুল কালাম।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় দুপুরে ১২টার দিকে তাকে সমাধিস্থ করা হয়। এসময় তার প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাতে সেখানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পাড়িকর, সংসদ বিষয়কমন্ত্রী এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু, কংগ্রেস ভাইস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধি প্রমুখ।

এদিকে,  প্রথিতযশা এই বিজ্ঞানীকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে বুধবার থেকেই রামেশ্বরামে নামে জনতার ঢল। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বাস, ট্রেন ও নৌকায় করে হাজার হাজার মানুষ সেখানে উপস্থিত হতে থাকেন। এদের অনেকেই রাস্তায় ঘুমিয়ে রাত কাটিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকালে নিজ বাড়ি থেকে তিন বাহিনীর সদস্যরা রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় ড. কালামের মরদেহ ঐতিহ্যগত সবুজ শালে ঢেকে সমাধিস্থলের উদ্দেশে রওনা হন।

এ সময় তার বড়ভাই মোহাম্মদ মুঠু মীরা লেব্বাই মারাইকারসহ (৯৯) পরিবারের সদস্যরা সঙ্গে ছিলেন। সমাধিস্থলে নেওয়ার পর এই প্রথিতযশা বিজ্ঞানীর দেহ ফুলে ফুলে ঢেকে যায়। এসময় চারপাশ ‘ভারত মাতা কি জয়’ শ্লোগানে মুখর হয়ে ‍ওঠে।

সোমবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় শিলংয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এক সভায় বক্তব্য প্রদানের সময় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এপিজে আবদুল কালাম। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। ১৯৩১ সালের ১৫ অক্টোবর রামেশ্বরামে এক দরিদ্র পরিবারে জন্ম নেন তিনি। তার পিতার নাম জয়নুল আবেদিন ও মাতার নাম আসিআম্মা।

বিখ্যাত এই বিজ্ঞানী নিজ কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ দেশের সর্বোচ্চ খেতাব ১৯৮১ সালে পদ্ম ভূষণ, ১৯৯০ সালে পদ্ম বিভূষণ ও ১৯৯৭ সালে ভারত রত্ন উপাধি পান।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট