রায়গঞ্জ :- কংগ্রেস ও বাম পঞ্চায়েত সদস্য যোগ দিলেন তৃনমূল কংগ্রেসে


শনিবার,২২/০৮/২০১৫
304

বিকাশ সাহাঃ    কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটিতে ক্রমশ শক্তিশালী হচ্ছে ঘাস ফুল। দীপা দাসমুন্সির খাস তালুক উত্তর দিনাজপুর জেলা, কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত ছিল। কিন্তু তৃনমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার আগে ও পরবর্তী সময়ে কংগ্রেস ও বাম নেতৃত্ব সহ কর্মীরা দলে দলে যোগ দিয়েছেন তৃনমূল কংগ্রেসে। সেই ধারা অব্যাহত রইল রায়গঞ্জের বিরঘই গ্রাম পঞ্চায়েতে। শুক্রবার বিকেলে রায়গঞ্জের ১১ নম্বর বিরঘই গ্রাম পঞ্চায়েতের ১১ সদস্য যোগ দিলেন তৃনমূল কংগ্রেসে। ২৪ টি আসন বিশিষ্ট বিরঘই গ্রাম পঞ্চায়েতে গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে ১৪ টি আসন দখল করে কংগ্রেস, ৯ টি বামফ্রন্টের ও একটি দখল করে তৃনমূল কংগ্রেস। প্রধান নিযুক্ত হয়েছিলেন কংগ্রেসের রামকুমার দেবশর্মা। উল্লেখ্য বিরঘই গ্রাম পঞ্চায়েত রায়গঞ্জ ব্লকের মধ্যে হলেও এটি কালিয়াগঞ্জ বিধানসভার অন্তর্গত। এদিন ৬ জন বামফ্রন্টের ও ৫ জন কংগ্রেসের পঞ্চায়েত সদস্য তৃনমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন। তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন তৃনমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি অমল আচার্য, রাজ্য সম্পাদক অসীম ঘোষ, জেলা যুব তৃনমূল কংগ্রেসের সভাপতি গৌতম পাল। এরপরে দলত্যাগী সদস্যরা কংগ্রেসের প্রধান রামকুমার দেবশর্মার হাতে স্বারকলিপি প্রদান করেন।
এলাকার অনুন্নয়ন ও পঞ্চায়েতের দুর্নীতির অভিযোগ এনে মমতা বন্ধোপাধ্যায়ের আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে তৃনমূল কংগ্রেসে যোগদান বলে জানান, বামফ্রন্ট তথা সিপিআইএমের পঞ্চায়েত সদস্য উজ্জ্বল বর্মণ।
তৃনমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি অমল আচার্য বলেন, আগামী দিনে বিরঘই গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠনে একধাপ এগিয়ে গেল তৃনমূল কংগ্রেস।
রায়গঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি তথা ব্লক কংগ্রেস সভাপতি লিয়াকত আলি জানান, টাকার প্রলোভনে তাঁরা তৃনমূল কংগ্রেস গিয়েছেন। আসন্য বিধানসভা নির্বাচনে এর কোনও প্রভাব পড়বে না।RSCN7246

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট