অদম্য ইচ্ছা ও মনের জোরে প্রতিবন্ধকতাকে জয় করেছেন রায়গঞ্জের শোভা দিদিমণি


শনিবার,০৫/০৯/২০১৫
452

বিকাশ সাহাঃ    অদম্য ইচ্ছা ও মনের জোরে আজ শিক্ষক ও ছাত্র ছাত্রীদের কাছে রোল মডেল রায়গঞ্জের বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীন রাঙ্গাপুরের শোভা মজুমদার। হাজারো প্রতিবন্ধকতাকে উপেক্ষা করে আজ তিনি শিক্ষকতা করছেন রাঙ্গাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। দুই হাত অকেজো তবুও পা দিয়ে নিজের প্রতিবন্ধকতাকে দুরে সরিয়ে রেখে মানুষ গড়ার কারিগর হিসেবে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন শোভা দিদিমণি। শোভা দিদিমণি হাজিরা খাতা থেকে শুরু করে ব্লাক বোর্ডে লেখা সবই করেন পা দিয়ে। ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে এদিন ছাত্র ছাত্রীরা শোভা দিদিমণিকে মিষ্টি মুখ করানো সহ ফুলের তোড়া দিয়ে শিক্ষক দিবস পালন করেন।
শিক্ষিকা শোভা মজুমদার বলেন, কারো যদি বড়ো হওয়ার ইচ্ছা থাকে তাহলে তাঁর ইচ্ছা শক্তিকে আগে জাগ্রত করতে হবে। তবেই সে বড়ো হয়ে মানুষের মতো মানুষ হবে। লড়াই করেই মানুষকে বড়ো হতে হয়। আজ শিক্ষক দিবসে শোভা দিদিমণিও সকল ছাত্র ছাত্রীদের মঙ্গল কামনা করেন।
উল্লেখ্য শোভা মজুমদারের ছোটো বেলা থেকেই দুই হাত অকেজো। দুই পায়ের উপর ভর দিয়ে আজ তিনি এম এ পাশ করেছেন। সেই সঙ্গে চাকরির পরীক্ষায় পাশ করে আজ তিনি শিক্ষকতা করছেন। বাবা মলিন মজুমদার সামান্য একজন কৃষিজীবী। মা গৃহবধূ । তারা দুই বোন ও এক ভাই। বাড়ির বড়ো মেয়ে শোভাকে আর্থিক প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে পড়াশুনা চালিয়ে যেতে হয়েছে। তাই শোভা দিদিমণি আজ প্রতিবন্ধকতার লড়াইয়ে জিতে সকলের সামনে রোল মডেলে পরিণত হয়েছেন।
উত্তর দিনাজপুর জেলা জুড়ে এদিন শনিবার ৫ই সেপ্টেম্বর পালন করা হল শিক্ষক দিবস। বিভিন্ন বিদ্যালয়ে এদিন ৫ই সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস পালন করা হলেও জন্মষ্টমীর ছুটি থাকায় ৪ই সেপ্টেম্বর অনেক বিদ্যালয়ে শিক্ষক দিবস পালন করা হয়েছে।DSCN8170

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট