ধামসা মাদলের তালে বুড়ি করম উৎসবে মাতল কালিয়াগঞ্জের আদিবাসী সম্প্রদায়


সোমবার,২৮/০৯/২০১৫
715

বিকাশ সাহাঃ    রাতভর ধামসা মাদলের তালে, গানে ও নৃত্যের ছন্দে বুড়ি করম উৎসবে মেতে উঠলেন মহিলা পুরুষ নির্বিশেষে ছোট থেকে বড় প্রায় প্রত্যেকেই। বুড়ি করম পূজা উপলক্ষে প্রতি বছরের মতো এবারও উত্তর দিনাজপুর বেদিয়া আদিবাসী (মাহাতো) কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল বরুনা উচ্চ বিদ্যালয়ের ফুটবল ময়দানে। বুড়ি করম পূজা সেই সঙ্গে রবিবার রাতভর চলল ঝুমুর নাচ প্রতিযোগিতা। উৎসবকে কেন্দ্র করে কালিয়াগঞ্জ ব্লকের অন্তর্গত বরুনা গ্রাম জুড়ে ছিল সাজো সাজো রব। উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা সহ মালদা জেলার মোট ৩০টি ঝুমুর নাচের দল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। পূজা ও ঝুমুর নাচ দেখতে কয়েক হাজার লোকের সমাগম হয় ফুটবল ময়দানে। ঝুমুর নাচ প্রতিযোগিতায় প্রথম হিসেবে নির্বাচিত দলকে উত্তর দিনাজপুর বেদিয়া আদিবাসী (মাহাতো) কল্যাণ সমিতির পক্ষ থেকে বাদ্যযন্ত্র দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে দ্বিতীয় ও তৃতীয় হিসেবে নির্বাচিত দলের হাতে পোশাক তুলে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কালিয়াগঞ্জ ব্লকের অন্তর্গত ৯ নম্বর বরুনা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান জয়ন্তী মাহাতো, উত্তর দিনাজপুর বেদিয়া আদিবাসী (মাহাতো) কল্যাণ সমিতির সম্পাদক কিশোর মাহাতো, জেলা সভাপতি সুধীর মাহাতো, জেলা কমিটির সদস্য বিমল মাহাতো ছাড়াও সংগঠনের অন্যান্য কর্মীরা।
কিশোর মাহাতো জানান, বুড়ি করম পূজা আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষের সব থেকে বড় উৎসব। মূলত ফসলের সমৃদ্ধি কামনায় বুড়ি করম পূজার আয়োজন করা হয়। করম গাছের ডালকে দেবতা হিসেবে পূজা করা হয়। পূর্বপুরুষদের দেখানো রীতি ও নিয়মনিষ্ঠা মেনেই এই পূজার আয়োজন করা হয়। পূজাতে আধুনিকতার ছোঁয়া লাগলেও ঐতিহ্য ও পরম্পরার কোনও পরিবর্তন হয়নি। DSCN8170

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট