রায়গঞ্জ সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্কের পরিচালন কমিটির নির্বাচনে চলল গুলি, বোমা ও ইট বৃষ্টি


শনিবার,১০/১০/২০১৫
385

বিকাশ সাহাঃ    রায়গঞ্জ সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্কের পরিচালন কমিটির নির্বাচনে চলল গুলি, বোমা ও ইট বৃষ্টি। এদিন শনিবার উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জের কর্ণজোড়ায় অবস্থিত বি এড ট্রেনিং কলেজে সকাল ১১ টা থেকে নির্বাচন হওয়ার কথা । সেই মতো ভোটাররা সকাল ৯ টা থেকে নির্বাচনী এলাকায় আসতে শুরু করে। বাম কর্মী সমর্থকদের অভিযোগ, ভোট গ্রহণ শুরুর আগেই তৃনমূল কংগ্রেসের দুষ্কৃতিরা নির্বাচনী এলাকায় ভোটারদের ঢুকতে বাঁধা দেয়। এরপরেই আচমকাই পুলিশের সামনেই গুলি, বোমাবাজি সহ ইট বৃষ্টি শুরু করে দুষ্কৃতিরা। গুলিবিদ্ধ হয় বাম সমর্থক ছটু হাঁসদা ও জিয়ায়ুল হক। আহত মোট ৫ জন সিপিআইএম কর্মী এখনও রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
সংঘর্ষের জেরে অল্পবিস্তর আহত হয়েছেন হেমতাবাদের সিপিআইএমের বিধায়ক খগেন্দ্র নাথ সিং, করণদিঘীর ফরওয়ার্ড ব্লকের বিধায়ক গোকুল রায় সহ রায়গঞ্জ থানার আই সি গৌতম চক্রবর্তী। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে র‍্যাপ ও বিশাল পুলিশ বাহিনী নামানো হয়। এরপরেই পুলিশ বেধড়ক লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ। তৃনমূল কংগ্রেসের সন্ত্রাসের প্রতিবাদে বেশ কিছুক্ষন ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরুদ্ধ করে রাখে বাম কর্মী সমর্থকরা।
সিপিআইএম নেতা বৈকুণ্ঠ বৈশ্য জানান, ২০০ জন ভোটার আমাদের সঙ্গে ছিল। ভোটারদের নিয়ে আমরা যখন নির্বাচনী এলাকায় প্রবেশ করছি সেই সময় তৃনমূল কংগ্রেসের বহিরাগত দুষ্কৃতিরা আমাদের রাস্তা আটকে দেয়। যারা আমাদের রাস্তা আটকেছে তারা কেউ ভোটার নয়। এরপরেই বহিরাগত দুষ্কৃতিরা আমাদের উপর গুলি, বোমা ও ইট বৃষ্টি শুরু করে। তৃনমূল কংগ্রেসের সাথে সাথে পুলিশ আমাদের পথ আটকে ধরে আমাদের উপর লাঠিচার্জ করে।
সিপিআইএমের আনা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে তৃনমূল কংগ্রেস নেতা অরিন্দম সরকার জানান, সিপিএম বরাবরই এই নির্বাচনে সন্ত্রাসের বাতাবরন রেখে জবরদস্তি নির্বাচন করে। এবারও সিপিআইএম রিগিং করে ভোট করবার জন্য বাইরে থেকে তিরধনুক, বোম পিস্তল নিয়ে হাজির ছিল। সেই সব নিয়ে আমাদের লোকেদের উপর চড়াও হয় সিপিএম। এই ঘটনায় আমাদের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। এদিন সমস্ত ভোটাররা ভোট দিয়েছে। আশা করি ভোটে আমাদের জয়লাভ হবে।
উল্লেখ্য উত্তর দিনাজপুর জেলার ৯ টি ব্লক ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার কুশমন্ডি, বুনিয়াদপুর ব্লকের ৪৭০ টা সমবায় সমিতির প্রতিনিধিরা এদিন রায়গঞ্জের বি এড ট্রেনিং কলেজে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে সকাল ৯ টা থেকে আসতে শুরু করেছিল। বেলা ১১ টা থেকে ভোট হওয়ার জন্য নির্ধারিত সূচী ঠিক ছিল। DSCN8170

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট