জম্মু – কাশ্মীরে মুসলিম ট্রাক চালককে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা !


রবিবার,১১/১০/২০১৫
125

খবরইন্ডিয়াঅনলাইনঃ     এক মুসলিম ট্রাক চালক ও তার সহকারিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করার চেষ্টাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। শনিবার এ নিয়ে রাজ্যের বিধানসভা এবং বিধান পরিষদে তুমুল হট্টগোলের জেরে বিরোধীরা হাউস থেকে ওয়াকআউট করেন। তারা কাশ্মিরের একটি ট্রাকে হামলার ঘটনার জন্য বিজেপিকে দায়ী করেন। এ নিয়ে এনসি নেতা এবং বিজেপি মন্ত্রীর মধ্যে তীব্র বিতর্ক হয়।

জাহিদ (১৯) এবং শওকত আহমদ (৩৫) নামে কাশ্মিরের ওই ট্রাক চালক এবং সহকারি আগুনে পুড়ে গুরুতর আহত হওয়ায় তাদের অবস্থা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক। কাশ্মিরের অনন্তনাগের বাসিন্দা জাহিদের শরীরের ৭০ শতাংশ এবং শওকতের ৪০ শতাংশ আগুনে পুড়ে যাওয়ায় তাদের এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে দিল্লির সফদরজঙ্গ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এর আগে তাদের উধমপুর জেলা হাসপাতাল এবং পরে জম্মু মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তর করা হয়। আহতদের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে এবার তাদের দিল্লিতে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে বিধানসভার উভয়কক্ষেই বিরোধীরা স্লোগান দিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। কাশ্মিরি ট্রাকে হামলা চালানোর জন্য তারা বিজেপি কর্মীদের দায়ী করেন। সরকার পক্ষ থেকে এই ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত করা হবে বলে হাউসকে আশ্বস্ত করার পাশাপাশি দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানানো হয়। যদিও সরকার পক্ষের আশ্বাসে সন্তুষ্ট না হওয়ায় বিরোধীরা ওয়াকআউট করে বেরিয়ে যান।

এদিন, বিধানসভায় স্পিকার কবীন্দ্র গুপ্তা উপস্থিত হতেই কংগ্রেসের আব্দুল মজিদ লারমী উধমপুরের ঘটনা উত্থাপন করেন। আলী মুহাম্মদ সাগর এবং আকবর লোন একে সমর্থন করেন। সদস্যরা এ নিয়ে তুমুল গোলমাল সৃষ্টি করলে রাজ্যের মন্ত্রী আব্দুল রহমান বীরি এর জবাব দেন।

সংবাদে প্রকাশ, শুক্রবার রাতে শিবনগর এলাকায় আচমকা কিছু যুবক জাতীয় সড়কে কাশ্মিরের নম্বর সম্বলিত একটি ট্রাকে পাথর নিক্ষেপ করা শুরু করলে ট্রাক চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি দেওয়ালে ধাক্কা মারে। এরপর উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা ট্রাক চালকের নাম জিজ্ঞাসা করে। চালক মুসলমান জানার পর ট্রাকটিতে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় তারা। ট্রাকের আরোহীরা আগুন থেকে বাঁচার চেষ্টা করলে তাদের উপরে অ্যাসিড নিক্ষেপ করা হয়। কোনো কোনো মিডিয়ায় একে পেট্রোল বোমা হামলা বলে বলা হয়েছে।

এ ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে দুষ্কৃতকারীরা তাদের উপরেও পাথর নিক্ষেপ করে চড়াও হয় এবং সেখান থেকে পালিয়ে যায়। এতে নরেন্দ্র সিং নামে এক পুলিশ কর্মী আহত হওয়ার পাশাপাশি তদের একটি গাড়িও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

পুলিশ এ ঘটনায় ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে এবং অন্য অভিযুক্তদের ধরার চেষ্টা চালাচ্ছে। প্রাথমিকভাবে ধৃত বাল বাহাদুর, সন্তুর সিং এবং সুমিত সিংয়ের নাম জানা গেলেও গ্রেফতার হওয়া অন্য অভিযুক্তদের নাম জানা যায়নি। ( ছবিঃ ওয়েবসাইট )।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট