চাঁদনী রাতে কালিয়াগঞ্জে ধর্ষণ করে খুন করা হল চাঁদনীকে


মঙ্গলবার,২৭/১০/২০১৫
410

 বিকাশ সাহাঃ   চাঁদনী রাতে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জে ধর্ষিতা হয়ে খুন হল ১১ বছরের চাঁদনী। হত দরিদ্র পড়িবারের মেয়ে চাঁদনী,  মা ও ভাইয়ের সঙ্গে কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত ধনকৈল হাটের মধ্যে একটি গুদাম ঘরে দিন গুজরান করত।  সোমবার রাতে ধনকৈল হাটের পাশে একটি বাড়িতে লক্ষ্মী পূজার পালাগান চলছিল। চাঁদনী খাতুনের মা জইমুল খাতুন,   ছেলে ও মেয়েকে বাড়িতে রেখে রাতে সেই পালাগান দেখতে যায়। বাড়িতে তখন ১১ বছরের চাঁদনী ও তার ভাই শুয়ে ছিল। বাড়িতে অবিভাবক না থাকার সুযোগ নিয়ে এলাকার যুবক বিকি বাহাদুর(৩০) চাঁদনীর ভাইকে চড় মেরে চাঁদনীকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে খুন করে বলে অভিযোগ। পালাগান শুনে বাড়িতে এসে চাঁদনীর খোঁজ করলে, ছেলে তার মার সামনে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরে। ঘটনার খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়তেই এলাকা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। স্থানীয় বাসিন্দারা চাঁদনীর খোঁজে ধনকৈল হাট চত্বরে খোঁজাখুজি শুরু করলে হাটের একটি ঘরের পাশে অচৈতন্য অবস্থায় চাঁদনীকে দেখাতে পায় তাঁরা। তড়িঘড়ি চাঁদনীকে কালিয়াগঞ্জ স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। এদিকে উত্তেজিত জনতা অভিযুক্ত বিকি বাহাদুরের খোঁজে তার বাড়িতে গেলে তাকে না পেয়ে তার বাড়িঘরে ব্যাপক ভাঙচুর চালানোর পাশাপাশি বাড়ির সমস্ত আসবারপত্রে আগুন ধরিয়ে দেয়। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে বিশাল পুলিশ বাহিনী। অভিযুক্ত বিকি বাহাদুরকে না পেয়ে তার মা সুভাষিণী বাহাদুরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।  ঘটনার সুরতহাল করতে কালিয়াগঞ্জে ছুটে আসেন ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট গোবিন্দ দত্ত। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ধনকৈল হাট চত্বর সহ গোটা কালিয়াগঞ্জ জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। তিন দিনের পুলিশি হেপাজত চেয়ে ধৃত সুভাষিণী বাহাদুরকে রায়গঞ্জ জেলা আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।        DSCN8170

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট