অবৈধ দখলদারদের দখলে ফুটপাত ঃ কালিয়াগঞ্জ


বুধবার,০৬/০১/২০১৬
748

 বিকাশ সাহাঃ   কালিয়াগঞ্জ শহরের বুক চিরে যাওয়া রায়গঞ্জ বালুরঘাটগামী ১০-এ রাজ্য সড়কের দুপাশের জায়গা অবৈধ দখলদারদের কারণে কালিয়াগঞ্জ শহরবাসীর মাথাবাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সুকান্তমোড় থেকে মারোয়াড়ী পট্টি পর্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তার দুইপাশে বেশকিছু দোকানের মালপত্র দিন দিন প্রায় রাস্তার উপরেই চলে আসছে। ফলে খদ্দেররা সেই সব দোকানের সামনের রাস্তাতে সাইকেল, মোটর বাইক রেখে দোকানে প্রবেশ করতে বাধ্য হন। দোকানের বাইরে রাস্তার ধারের ড্রেন সহ রাস্তার পাশের ফুটপাত দোকানদারদের দখলে চলে যাওয়ায় ভীষণ অসুবিধার মধ্যে পড়েছেন শহরের সাধারণ মানুষ। এই রাস্তা দিয়ে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত রায়গঞ্জ বালুরঘাটগামী বাস, ট্রাক সহ কয়েকশ যানবাহন চলাচল করে। দোকানগুলির সামনে রাস্তার ধারে সাইকেল, মোটর বাইক থাকার কারণে মাঝেমধ্যেই যানজটের সৃষ্টি হয়। ফলে এই রাস্তায় যেকোনো সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা হতে যেতে পাড়ে। কিন্তু এই অবৈধ দখলদারদের থেকে রাস্তার পাশের ফুটপাত এলাকা দখল মুক্ত করতে কালিয়াগঞ্জ পৌরসভা ও পূর্ত দপ্তরের কোণও ভুমিকা দেখা যাচ্ছে না। ফলে দিনের পর দিন একে অপরকে দেখে দোকানদাররা বহাল তবিয়তে নিজের নিজের দোকানের সামনের রাস্তার পাশের ফুটপাত দখল করার প্রতিযোগিতা শুরু করেছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক দোকানদার জানান, দোকানের বাইরে মালপত্র সাজিয়ে রাখলে সহজেই তা খদ্দেরের চোখে পরে। তাই আমরা দোকানের মালপত্র দোকানের বাইরে সাজিয়ে রাখি। রাস্তায় খদ্দেরদের সাইকেল, মোটর বাইক রাখার প্রসঙ্গ আস্তেই ওই দোকানদার জানান, সাময়িক অসুবিধা হয় ঠিকই কিন্তু জিনিসপত্র কেনা হয়ে গেলেই তো খদ্দের চলে যায়। ফলে তেমন কোণও অসুবিধা হয় না।
কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার পুরপতি অরুন দে সরকার জানান, দোকানদাররা তাঁদের দোকানের মালপত্র রাস্তার পাশের জায়গায় সাজিয়ে যাতে না রাখেন তারজন্য পৌরসভার তরফে দোকানদারদের বারবার বলা হয়েছে। আগামিতে পৌরসভা, ব্যবসায়ী সমিতি ও পুলিশ প্রশাসনের যৌথ উদ্যোগে এব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।DSCN8170

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট