এক বৃদ্ধার ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল কালিয়াগঞ্জের রাধিকাপুরে


শুক্রবার,০৮/০১/২০১৬
343

 বিকাশ সাহাঃ   এক বয়স্কা মহিলার মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল কালিয়াগঞ্জের ৩ নম্বর রাধিকাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত রামগঞ্জে। আনুমানিক ৬৫ থেকে ৭০ বছর বয়সী মৃতের নাম বাতাসী রায়। তিনি বুধবার দুপুরে ছাগল খুঁজতে বেড়িয়েছিল। তারপর থেকেই তাঁর স্বামী সহ পড়িবারের লোকেরা অনেক খোঁজাখুঁজি করেও বাতাসী দেবীর কোণও হদিস পাননি। স্থানীয় সুত্রের খবর বাতাসী দেবী মাঝে মধ্যেই যে কোণও অজুহাতে বাড়ি থেকে বের হয়ে অন্যান্য আত্মিয়ের বাড়িতে গিয়ে থাকতেন। সেই কারণে বাতাসী দেবী নিখোঁজ হওয়ার পর বাড়ির লোকেরা ভেবেছিলেন কোণও আত্মিয়ের বাড়িতে গিয়ে রয়েছে সে। সেই মত থানায় কোণও লিখিত অভিযোগ না জানিয়ে শুধু আত্মিয়ের বাড়ি বাড়ি খোঁজাখুঁজি করেই দায় সেরেছে বাড়ির লোকেরা। এদিন শুক্রবার বিকেলে  রাধিকাপুরের রামগঞ্জে নিজ বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি সরিষা খেতে বাতাসী দেবীর ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। খবর আসে কালিয়াগঞ্জ থানায়। কালিয়াগঞ্জ থানার আইসি শ্রীমন্ত বন্ধোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী এদিন বিকেল সাড়ে চারটে নাগাত ঘটনাস্থলের ছুটে যান। এদিন সন্ধ্যের পড়ে ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসে পুলিশ। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানাযায়, বাতাসী দেবীর দেহ ও মুখের বেশ কিছুটা অংশ ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় পড়ে ছিল। তা দেখে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান সম্ভবত শেয়াল বা কুকুর বাতাসী দেবীর শরীরের বিভিন্ন অংশ খুবলে নিয়েছে। বাতাসী দেবীর রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে তদন্ত শুরু করে কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট