সারা রাজ্য জুড়ে ডেঙ্গু জ্বরের আতঙ্কে সাধারণ মানুষ


সোমবার,৩০/১০/২০১৭
947

নিজস্ব সংবাদদাতা: সারা রাজ্য জুড়ে ডেঙ্গু জ্বরের আতঙ্কে সাধারণ মানুষ। গ্রাম-মফস্বল থেকে শহর, সর্বত্রই ডেঙ্গুর প্রকোপ। প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে মেডিকেল কলেজ-হসপিটাল ভিড় সর্বত্র। বেড খালি না থাকায় রোগীর স্থান হসপিটালের মেঝেতে,সামান্য একট প্লাস্টিকের উপর। মৃত্যুর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। সরকারের বাড়তি তাগিদ প্রশংসার দাবী রাখে। যদিও প্রশ্ন থেকেই যায় মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে। এমতাবস্থায় এক শ্রেণির মানুষ সচেতনতার পথে নেমেছে। ট্যাগ লাইন একটা “ডেঙ্গুর কোণ চিকিৎসা নেই, সচেতনতাই ডেঙ্গু মুক্তির উপায়, তাই সচেতন হন ডেঙ্গু থেকে মুক্তি পান”। উত্তর ২৪ পরগণার দেগঙ্গা, হাড়োয়া সহ একাধিক স্থানের পরিবার,বাড়ি ছাড়া।

নাম না জানা এক যুবক এলাকাবাসী কে সচেতন করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছে। দঃ ২৪ পরগণার ভাঙড়ে ইসলামিক সংগঠন রাস্তায় নেমেছে। রাজারহাটের বিডিও অর্ণিবান দত্ত মহাশয় একরকম নিজের উদ্যোগে নবাবপুর, রেকজোয়ানি সহ একাধিক অঞ্চলে ডেঙ্গু সচেতন শিবির করেছেন। এলাকাতে এলাকাতে স্প্রে, ব্লিচিং পাউডার ছড়ানো কর্মসূচি পালন করেছেন। এসবের পাশাপাশি রাজারহাটের নিদান পলিক্লিনিক এন্ড ডাইগোনেস্টিক সেন্টারের সহযোগিতায় টানা সচেতন শিবির করে চলেছে একতা সম্প্রচার ও বাংলা এক্সপ্রেস।”মানুষ মানুষের জন্য”, গানের লাইনটি যখন “ব্যস্ত আছি”র মধ্যে একপ্রকার ক্ষীণ, তখন সঞ্জীব মন্ডল নামের এ অনামি মানুষের মানবিকতার প্রকাশ। সাধারণ মানুষ কে সচেতন শিবিরে যোগদান করানোর জন্য মুড়ি, লুচি,আলুরদোম খাওয়ানোর ব্যবস্থা করে ডেঙ্গু সচেতনায় বেড়িয়েছে।

“আজ মঙ্গলবার জঙ্গল সাফ করবার দিন” কোথায় একটা পরিবর্তন হয়ে “আজ রবিবার জঙ্গল পরিষ্কার করবার দিন” এ এসেছে। ডেঙ্গুর এই মরণদশা থেকে মুক্তির জন্য। তাই বাংলা এক্সপ্রেস কুর্নিশ জানায় নিদান, সঞ্জীব, বিডিও অণির্বান বাবু, ইসলামিক সংগঠন, বা এমন নাম না জানা হাজারো স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন কে। এমন সময়ে মানুষ হয়ে মানুষের পাশে যদি না থাকলাম তাহলে কিসের মানুষ হওয়া? সব গ্লানি ভুলে আসুন আমরা মানবিক হয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ায়।

****** “সবার উপর মানুষ সত্য******”।
আপনার এলাকাতে যদি সচেতন শিবির করাতে ইচ্ছুক থাকেন তাহলে যোগাযোগ করতে পারেন বাংলা এক্সপ্রেস এর ঠিকানায়। আমরা পাশে আছি পাশে থাকব।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট