ধুরঝটি ধাম


সোমবার,০৫/০৩/২০১৮
436

বাংলা এক্সপ্রেস: কোলকাতার ভিতরে আছে অন্য এক কোলকাতা, যা সকলের অগোচরে নিজের রূপ, রস, গন্ধ দিয়ে মোহমায়ায় আবিষ্ট করে আমাদের। তাই তো কবি, সাহিত্যিকদের লেখায় বারবার উঠে আসে সেই অন‍্য কোলকাতার রূপ। কখনো বা ফ্রেমে বন্দি হয়ে ধরা পড়ে ক‍্যামেরার লেন্সে। দৈনন্দিন যাতায়াতের পথে আমরা এমন অনেক বৈচিত্র্যময় জিনিসের সম্মূখীন হই। কখনও বিষ্ময় চোখে থমকে দাঁড়াই কখনো মনের খেয়ালে পাশ কাটিয়ে চলে যাই।
         বৈচিত্র্যময় তিলোত্তমার অন‍্য এক বৈচিত্র্য “ধুরঝটি ধাম”। ভিক্টোরিয়ান যুগের এই নিদর্শনটি 35/2/A ক্ষুদিরাম বোস রোড, টালায় অবস্থিত। তবে সেখানে পৌছানোর অন‍্যতম সহজ উপায় বেলগাছিয়া মেট্রো স্টেশন থেকে। এটিকে অনেকে “বেলগাছিয়া প‍্যালেস” ও বলে থাকেন।
       উনিশ শতকের প্রথমার্ধে জমিদার নারায়ন কৃষ্ণ সেন এই মহলটি তৈরি করেন। তিনি বিখ্যাত জমিদার গৌরি সেন এর বংশধর ছিলেন। “লাগে টাকা দেবে গৌরি সেন” বাংলায় এই প্রবাদ টি এসেছে গৌরি সেনের উদারতা ও পরোপকারীতা থেকে।
  ছবিঃ জমিদার নারায়ন কৃষ্ণ সেন
        সত‍্যজিৎ রায়ের  ব‍্যোমকেশ বক্সির কাহিনী অবলম্বনে “চিড়িয়াখানা” সিনেমাটি এই বাড়িতেই তৈরি। এছাড়াও “ব‍্যোমকেশ অমনিবাস্” এর অধিকাংশ সিনেমার শুটিংই এই বাড়িতেই করা। সম্প্রতি “মেরি পেয়ারি বিন্দু” নামক জনপ্রিয় হিন্দি সিনেমাটির গল্প এই বাড়িটি জুড়েই। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সিনেমার পর্দায় ধরা পড়েছে এই বাড়িটির সৌন্দর্য।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট