10 টাকার কয়েন নিতেও অস্বীকার করছে বন্ধন ব্যাঙ্ক, দুর্ব্যবহার স্বনির্ভর মহিলাদের


সোমবার,২৩/০৪/২০১৮
179

উত্তর দিনাজপুর,কালিয়াগঞ্জ: আবারো খুচরো পয়সা না নেওয়ার অভিযোগ উঠলো কালিয়াগঞ্জ বন্ধন ব্যাঙ্কের এক কর্মীর উপর। খুচরো পয়সার সমস্যা সমাধানে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নিদের্শকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে নিয়ম ভঙ্গ করলেন কালিয়াগঞ্জের বন্ধন ব্যাঙ্ক কর্মী । অভিযোগ কালিয়াগঞ্জের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা কিছু খুচরো 5 টাকা ও 10 টাকার কয়েন জমা দিতে গেলে।ওই কর্মী তাদের সেই 10 টাকা ও 5 টাকার কয়েন গুলো নিতে অস্বীকার করেন।

জানা যায়, কালিয়াগঞ্জের রায় কলোনীর একটি বাড়িতে বন্ধন ব্যাঙ্কের কর্মীদের কাছে সামান্য 5 ও 10 টাকার কয়েন
জমা দিতে গেলে সেই কর্মী সেই টাকা নিতে অস্বীকার করে দেন।

এদিন কিছু স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা জানান সামান্য 5 টাকা 10 টাকার কয়েন ও জমা নিতে অস্বীকার করছে ওই বন্ধন ব্যাঙ্কের কর্মী ।এমনকি সেই 5 ও 10 টাকার কয়েন গুলো ও জমা দেওয়ার চেষ্টা করলে তিনি তাদের সাথে দুর্ব্যবহার করছেন।

তাদেরকে বলা হচ্ছে এই ভাবে যদি কোন মহিলা খুচরো পয়সা দেয় তাহলে আগামীদিনে তাদের ঋন দেওয়া বন্ধ করা হবে বলে অভিযোগ। এই ব্যবহারে আবারো চিন্তার মুখে মহিলারা।তাদের বক্তব্য এক টাকা দুই টাকার খুচরো পয়সা নয় পাঁচ ও দশ টাকার খুচরো কয়েন গুলো ও নেওয়া হচ্ছে না বন্ধন ব্যাঙ্কে ।

উল্লিখিত রিজার্ভ ব্যাংক যখন স্পষ্ট জানিয়েছে, ব্যাংকগুলিকে খুচরো পয়সা নিতে হবে গ্রাহকদের থেকে।তার পর ও বার বার বন্ধন ব্যাঙ্ক এই সামান্য কিছু খুচরো পয়সা নিতে ও অস্বীকার করছে মহিলাদের কাছে।শনিবার এদিন কালিয়াগঞ্জের রায় কলোনীতে বন্ধন ব্যাঙ্কের এক কর্মী মহিলাদের কাছে 100 টাকার 10 টাকার কয়েন গুলো নিতেও অস্বীকার করেন।এবং মহিলাদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন বলে জানা যায় ।

মহিলারা জানান এখন দোকান গুলি তে যদিও বা খুচরো পয়সা নেওয়া হচ্ছে তবে ব্যাঙ্ক গুলো 5 থেকে 10 টাকার খুচরো নিতেও অস্বীকার করাতে তাদের নিত্য দিন অপমানিত হতে হচ্ছে ব্যাঙ্ক কর্মীদের কাছে।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট