ভোটের আগেই গ্রামের মানুষের মন জিতে নিয়েছেন নবীন প্রার্থী শাহনওয়াজ আলী


শনিবার,২৮/০৪/২০১৮
551

বাংলা এক্সপ্রেস, হেমতাবাদ: ভোটের দিন ঘোষণা হতে না হতেই কোমর বেঁধে প্রচারে নেমে পড়লেন তৃণমূলের নেতা কর্মীরা। এবারে উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদের 9 নং পঞ্চায়েত সমিতি থেকে দাঁড়িয়েছেন শাহনেওযাজ আলি
ও 10 নং নওদা অঞ্চলের অনন্ত কোঠা জিপি থেকে তৃণমূলের আসন থেকে দাঁড়িয়েছেন রেহেনা খাতুন।প্রচণ্ড কড়া রোদ কে উপেক্ষা করে এই দুই নব তরুণ তরুণী মুখ্যমন্ত্রীর উন্নয়নের জোয়ার কে হাতিয়ার করে সকাল থেকেই বেরিয়ে পড়ছে গ্রামের প্রতিটি বাড়িতে বাড়িতে ।আর এই নব তরুণ তরুণীদের ভোটের ময়দানে দেখে বহু মানুষ আনন্দে উচ্ছ্বসিত বিশেষ করে গ্রামের যুব সমাজ।তাই তাদের প্রচারে গ্রামের যুবকরাও আনন্দ উচ্ছাসের ভরপুর মেজাজে তৃণমূলের সেই স্লোগান অর্থাত্ আমরা কারা তৃণমূল ,দিকে দিকে তৃণমূল জিতবে কারা তৃণমূল এই স্লোগান কে সামনে রেখে করতালি দিতে দিতে তারাও এই নব তরুণ প্রাথীর্ সাথে প্রচারে নেমে পড়েছেন ।তাদের বিশ্বাস এবারের ভোট ময়দানে দিদির উন্নয়নের হাত ধরবে সকলে।

কারণে দীর্ঘ বাম শাসন থেকে আজ ও এই গ্রাম উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত । গ্রামে যাতায়াত ব্যাবস্থা, পানীয় জল সব কিছু থেকেই আজ গ্রাম বাসীরা বঞ্চিত ।তাই এই সবের পরিসমাপ্তি ঘটাতে মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীর হাত যে তাদের ধরতে হবে এই কথা ভালোই বুঝে গেছেন গ্রাম বাসীরা।

9 নং গ্রাম পঞ্চায়েতের নব তরূণ প্রার্থী শাহনওয়াজ আলি বলেন এই প্রথম কলেজের গণ্ডি পেরিয়ে রাজনৈতিক জীবনে তার পা।কলেজে ছাত্র রাজনীতি তে যোগদান থাকলেও এই বার প্রথম তিনি গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে দাঁড়িয়েছেন ।

ইচ্ছে একটাই গ্রামে বেকারত্ব দূর করে সাধারণ মানুষকে কর্মমুখী করে তোলা। শাহনওয়াজ আলি জানান গ্রামের সব চেয়ে বেশী সমস্যা বেকারত্ব তাই তার ইচ্ছে আগামী দিনে এই গ্রামে কোন কারখানা কিংবা ফাক্টারি হলে গ্রামের বহু ছেলেমেয়ের সেই বেকারেত্বর সমস্যা থেকে মুক্তি পাবে।গ্রাম বাসীদের বক্তব্য বাম আমল থেকে এখন পর্যন্ত অনন্ত কোঠা,বাজিতপুর,বিধিসল,কৃষণবাটি সহ বহু  গ্রামে কোন উন্নয়ন হয়নি ।দিনপ্রতিদিন বহু সমস্যায পড়তে হয় সাধারণ মানুষদের তাই এবারে আর বাম নয দিদির উন্নয়নের হাত ধরেই তারা এগতে চায এবার।

গ্রামের পিঙ্কি,রোহানা,রুকসানা,চম্পা দিদিরা জানান মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী আজ তাদের ছেলেমেয়েদের সাইকেল,কন্যাশ্রী,রূপশ্রী সব রকম সুযোগ সুবিধা দিচ্ছেন। গ্রামে গ্রামে উন্নয়ন হচ্ছে তাই আর এবার এই গ্রাম কে পিছিয়ে রাখতে তারা চান না তাই ঘাস ফুলের সঙ্গী হয়ে থাকবেন তারা।তাই তাদের ভোট তারা নিশ্চিন্তে তাদের নব প্রার্থী শাহনাওয়াজ আলী ও তাদের গ্রামের মেয়ে রোকসানা খাতুন ই পাবে।এদিকে শাসক দল গ্রাম থেকে গ্রাম যতটা উচ্ছাসের সঙ্গে প্রচারে নেমে পড়েছেন ।

অন্যান্য বিরোধী দলের প্রচারের কোন খবর এখনো পর্যন্ত শোনা যাচ্ছে না।গ্রাম বাসীদের বক্তব্য বিরোধীদের এখনো পর্যন্ত গ্রামে প্রচারে দেখা যাচ্ছে না।গ্রামের বাসিন্দারা জানান গ্রামে গ্রামে যে এবার ঘাস ফুল ফুটবে তা বিরোধীদের নিস্তব্ধতা দেখলেই বোঝা যাচ্ছে ।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট