উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যে চতুর্থ ইসলামপুরের সায়ন


শুক্রবার,০৮/০৬/২০১৮
472

পিয়া গুপ্তা---

উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের মানচিত্রে স্থান করে নিল ইসলামপুরের সায়ন কুমার দাস। মন্ত্রী হিসেবে নয় এই স্কুলের শিক্ষক হিসেবে রাজ্যে চতুর্থ স্থানাধিকারী সায়নকে শুভেচ্ছা জানাতে এলাম। শুক্রবার ইসলামপুর হাইস্কুলে এসে কৃতী ছাত্র সায়নকে পাশে নিয়ে এমনই জানান রাজ্যের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী গোলাম রব্বানী। এদিন ওই ছাত্রকে সংবর্ধনার পাশাপাশি সবাইকে মিষ্টিমুখ করান মন্ত্রী রাব্বানী।বিদ্যালয়ের তরফে প্রধান শিক্ষক মহম্মদ সলিমুদ্দিন আহমেদ ওই কৃতিকে সংবর্ধনা জানান।

পল্লবী সাহার পর আবার উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যের মানচিত্রে স্থান রাখলো ইসলামপুরের সায়ন কুমার দাস। সায়ন রাজ্যে চতুর্থ স্থান দখল করায় ইসলামপুর শহরের মানুষের মনে যেন উচ্ছাসের বহিঃপ্রকাশ। সায়নের প্রাপ্ত নাম্বার ৪৮৭। ইসলামপুর হাই স্কুলের কৃতী ছাত্র সায়ন মাধ্যমিকেও রাজ্যে একাদশ তম স্থানে ছিল। আই আই এস ই আর তে ভর্তি হবার পাশাপাশি ভবিষ্যতে গবেষণা মূলক কাজ করতে আগ্রহী বলে জানায় সায়ন। সায়নের বাবা সমর দাস সাগুদাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন, থাকেন স্থানীয় নেতাজী পল্লী এলাকায়।সায়ন কুইজে ভীষণ আগ্রহী। নানান প্রশ্নের অজানা উত্তর যেন ওর মুখস্ত।

শুক্রবার এই খবর চাউর হতেই বাড়িতে শুভেচ্ছা জানাতে ছুটে আসেন অসংখ্য মানুষ । সায়নের বাংলায় ৯৬,ইংরেজিতে ৯৭,রসায়নে ৯৬,অংকে ৯৯,পদার্থ বিদ্যায় ৯১ এবং জীব বিদ্যায় ৯৯। বিদ্যালয়ে এসে মন্ত্রী গোলাম রব্বানী সায়নকে জানান,”তুমি আই এ এস হও।দেশের মুখ উজ্জল কর। তোমার বাবা আমার ছোটবেলার বন্ধু। গোয়াল পোখরের বাসিন্দা সে। এটা ভেবেই খুব আনন্দ হচ্ছে। এই স্কুলেই কুড়ি বছর শিক্ষক ছিলাম। ছেলেদের রেজাল্ট ভালো হয়েছে। আমি গর্বিত। সায়নকে দেখে  পিছিয়ে পড়া জেলার সব পড়ুয়ারা উৎসাহ খুঁজে পাবে।”

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট