বিজ্ঞানের যাদুতে মাতিয়ে তুলেছেন বাপি


শুক্রবার,১৩/০৭/২০১৮
371

নিজস্ব সংবাদদাতা---

পুথি গত বিদ্যার সাথে সাথে বিঙ্গানকে অতি সহজে ছাত্র ছাত্রীদের কাছে তুলে ধরতে অভিনব উদ্যোগ গ্রহণ করছে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ শেরগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের জীবন বিঙ্গানের শিক্ষক অরুণাংশু দাস। তিনি শেরগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক অরুণাংশু দাস নাম হলেও তাকে বাপি স্যার বলেই তিনি পরিচিত । কালিয়াগঞ্জ পুর এলাকার শেষ প্রান্তে বিদ্যালয়টি হবার কারনে বিদ্যালয়ে বেশির ভাগ দুস্থ্য পরিবারের ছেলে মেয়েরা পড়াশুনা করে। তিনি তার বিদ্যাল্যের ছাত্র ছাত্রীদের বিঙ্গান বিষয়ে পড়াতে গিয়ে দেখেন বিঙ্গান নিয়ে পড়াতে গিয়ে সমস্যায় মধ্যে পড়তে হচ্ছে। তিনি তখন চিন্তা করেন বিঙ্গানকে অতিসহজে ছাত্র ছাত্রীদের কাছে পৌছাতে গেলে অন্য কিছু ভাবতে হবে। তাই তিনি তার ২০ বছরের অভিঙ্গতাকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন ধরনের বিঙ্গানের মডেল বানিয়ে তার বিদ্যালয়ে এবং নিজের স্কুল পাড়ার বাড়িতে ছাত্র ছাত্রীদের ডেকে পড়াশুনা করান বিনা মূল্যে। যাতে ছাত্র ছাত্রীরা বিঙ্গানকে ভয় না পায়।

কিন্তু এই সব বিজ্ঞানের মডেল কিভাবে বানাবেন তা নিয়ে একটু সমস্যায় পড়েন। কিন্তু ছাত্র ছাত্রীদের কথা চিন্তা করে অল্প দিনেই সমস্যার সমাধান বেড় করেন। আমরা যেসব সামগ্রী ব্যবহারের পড় ফেলে দি সেই সব সামগ্রী কোন সময় বিনা মূল্যে কিংবা অল্প দামে কিনে সে সব দিয়েই বিঙ্গানের নানা মডেল তৈরী করেন। যেমন কলেম শিস, খালি জলের বোতল, ভেঙ্গে যাওয়া খেলনা গাড়ির চাকা সহ বিভিন্ন সামগ্রী, বাচাদের পুতুল,থার্মকল, সহ বিভিন্ন জিনিস দিয়ে তিনি মডেল তৈঁরী করে সেই সব মডেল দিয়ে তার বাড়িতে এবং বিদ্যালয়ে ছাত্র ছাত্রীদের বিঙ্গান বিষয়ে পড়াশুনা শেখান যা পাঠ্য বইয়ের তুলনায় অতিসহজে ছাত্র ছাত্রীরা বিঙ্গানের সমন্ধ্যে ধারন হচ্ছে। যখন বিঙ্গান নিয়ে না গবেষনা চলছে,তখন তাদের প্রীয় বাপি স্যার নেমে পড়লেন নিজস্ব পদ্ধতিতে পাঠ্যবইকে পড়ুয়াদের কাছে আকর্ষনীয় করে তুলতে। মজাদার সব মডেল তৈরী করে পড়ুয়াদের কাছে এখন ভীষন প্রিয় অরুনাংশু দাস ওরফে বাপি স্যার।

শিক্ষক অরুনাংশু দাস বলেন, তার বিদ্যালয়ে বেশির ভাগ ছাত্র দুস্থ্য পরিবারের। তারা বিঙ্গান নিয়ে পড়াশোনা করতে ভয় পায়। ফলে তারা অনেকটাই পিছিয়ে পড়তে। তারা যাতে বিঙ্গানকে ভয় যাতে না পায় তাই পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে অবসর সময়ে পড়াশোনার উপকরণ হিসাবে তৈরি করেছেন বিভিন্ন ধরনের মডেল। সেই সব বিঙ্গানের মডেল দিয়ে ছাত্র ছাত্রীদের এক প্রকার খেলার ছলের মতোই বিঙ্গান নিয়ে পড়াশোনা করছেন। ফলে সমস্ত বিঙ্গানকে সহজ ভাবে নিতে পারবে। সেই কারনে তিনি মডেল বানিয়ে ছাত্র ছাত্রীদের পাঠ দান করছেন।

ছাত্র-ছাত্রীরা জানায়,তাদাদের অরুনাংশু স্যার বিভিন্ন ধরনের বিঙ্গানের উপরে মডেল বানিয়ে তাদের বিঙ্গান বিষয়ে প্রান। এরফলে আমাদের অতি সহজে পড়াশুনা করতে সুবিধা হয়। তাদের স্যার বিদ্যালয়ে তো প্রান তার সাথে সাথে নিজের বাড়িতে ডেকেও মডেল দিইয়ে তাদের হাতে কলমে পড়াশুনা শেখান বিঙ্গান বিষয়ে।

অপরদিকে শিক্ষক অরুনাংশু দাসের বিদ্যালয়ের সহকর্মিরা জানান, অরুনাংশু বাবু অনেক অভিগ্য শিক্ষক ।তিনি বিদ্যালয়ের সরকারি যাবতিয় সহকারি প্রধান শিক্ষকের কাজ কর্মসেরে ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে যে বিঙ্গান সম্পর্কে ভিতি রয়েছে তা দূরকরতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে বিঙ্গানের উপরে নানা ধরনের মেড বানিয়ে সেই সব মডেল দিয়ে ছাত্র ছাত্রিদের অতিসহজে পড়াশোনা শিক্ষাচ্ছেন । যাতে করে ছাত্র ছাত্রদের মধ্যে বিঙ্গান সম্পর্কে  ভয় যেমন কাটছে ,পড়ুয়ারা অতি সহজে বিঙ্গান সম্পর্কে সচেতন হচ্ছে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট