ঝাড়গ্রামে মমতা, জোড়া নিশানায় বিজেপি ও মাওবাদী


বৃহস্পতিবার,০৯/০৮/২০১৮

কার্ত্তিক গুহ---

ঝাড়গ্রাম:– ঝাড়গ্রাম স্টেডিয়ামে বিশ্ব আদিবাসী দিবস ও ভারত ছাড়ো আন্দোলনের ৭৫ বছর পূর্তির অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  ঝাড়গ্রামে আদিবাসী দিবসের অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে বিজেপি-কে কড়া আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেন, “গণপিটুনির নামে অত্যাচার চলছে। সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার চলছে।” তাঁর অভিযোগ, “ঝাড়খণ্ড থেকে মাওবাদীদের ঢুকিয়ে আবার ঝাড়গ্রামকে রক্তাক্ত করতে চাইছে।” পাশাপাশি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, মাওবাদীদের যারা সমর্থন করে তাদের ঢুকতে দেবেন না।তিনি আরো জানান ঝাড়গ্রামকে নতুন জেলা করা থেকে শুরু করে, নয়াগ্রামে স্টেডিয়াম, জঙ্গলকন্যা সেতু, সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, অলিচিকি মাধ্যম স্কুল সব করেছে মা-মাটি-মানুষের সরকার।” বাম আমলের শেষ পর্যায়ের রক্তস্নাত জঙ্গলমহলের কথা উল্লেখ করে এ দিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “লোকে ভয়ে বেরোতে পারত না। আদিবাসী ছেলে-মেয়েরা স্কুল কলেজে যেতে পারত না। কী ছিল ঝাড়গ্রাম? কী ছিল বেলপাহাড়ি? কী ছিল বাঘমুন্ডি? বাঘের ভয়। মাওবাঘ। এখন আবার ঝাড়খণ্ড থেকে মাওবাদী ঢুকছে। বিজেপি ওদের ঢোকাচ্ছে। মাওবাদীদের ঢুকতে দেবেন না। ওদের সাপোর্ট করবেন না।”একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী ঝাড়গ্রামে নানা উন্নয়নের কথা জানান। তিনি বলেন, ‘‘স্থানীয় ছেলেমেয়েদের আর বাইরে পড়তে যেতে হবে না।’’ ঝাড়গ্রামে নতুন বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়ায় আরও অলচিকি স্কুল হবে বলে জানান তিনি।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট