ব্যস্ততার মধ্যেও কর্তব্যের নজির বাবলু সরকারের


শুক্রবার,১০/০৮/২০১৮
431

নিজস্ব সংবাদদাতা---

বারাসাত: মঙ্গলবার রাহানা হাই মাদ্রাসা উচ্চ বিদ্যালয়ে এলাকার তরুন সমাজসেবী বাবলু সরকারকে দেখা গেল এক অন্য ভূমিকায়। রাজ্যস্তরে ইতিমধ্যেই নজরুল চর্চা কেন্দ্র এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক হিসাবে এবং অন্যান্য সমাজসেবা মূলক ক্রিয়াকলাপে মাধবপুর প্রহ্লাদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের এই তরুণ শিক্ষক বহু সুনাম অর্জন করেছেন। নহাটা কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ তথা নজরুল চর্চা কেন্দ্রের সভাপতি ড. শেখ কামাল উদ্দিন মহাশয়ের পাশাপাশি বাবলু সরকারের নাম নজরুল চর্চা কেন্দ্রের হাত ধরে ইতিমধ্যেই রাজ্যের সীমানা পেড়িয়ে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে প্রতিবেশী রাজ্য বাংলাদেশের গুণীজন মহলেও সমাদর লাভ করেছে। সেই বাবলু সরকার কে যখন আজ রাহানা হাই মাদ্রাসায় কর্মরত শিক্ষকদের বিএড এর সিলেবাস মেনে প্রাকটিস টিচিং এ হাজির হতে দেখা গেল তখন অবাক হন প্রশিক্ষক অধ্যাপক থেকে শুরু করে অন্য ছাত্রছাত্রীরাও। এ বিষয়ে বাবলু সরকারের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন – “শিক্ষকতা মহান পেশা। শিক্ষকরা সমাজ গঠনের কারিগর। তাই শত ব্যাস্ততা থাকলেও কর্তব্যে গাফিলতি শিক্ষকদের পক্ষে অশোভন। তাই সব কাজ ফেলে নির্ধারিত দিন থেকেই আমি আমার কলেজের নিয়ম মেনে প্রশিক্ষণ টি সঠিক ভাবে সম্পন্ন করার উদ্দেশ্য রোজকারের মত আজও প্রশিক্ষণে এসে হাজির হয়েছি।”

কেবল হাজির হওয়া নয় কলেজ থেকে রাহানা মাদ্রাসায় অন্যান্য প্রশিক্ষণরত শিক্ষার্থী শিক্ষকদের মেন্টর টিচার করে বাবলু সরকারকে যে দায়িত্ব দিয়ে পাঠানো হয় তাও তিনি অত্যন্ত সুন্দর ভাবে পালন করেছেন বলে জানা গেল প্রশিক্ষণে হাজির আমডাঙা আদর্শ কলেজের তত্ত্বাবধায়ক অধ্যাপক দুর্জয় বোস মহাশয় এর কাছ থেকেও। তিনি এদিন বলেন – “যে কোন কাজের প্রতি বাবলুর এই কর্তব্যনিষ্ঠা অনুকরণযোগ্য। শুধু তাই নয় যে কোন মানুষের প্রতি বাবলুর আন্তরিক এবং সৌহার্দ্য মূলক ব্যবহার সকলেরই মন ছুঁয়ে যায়। সহপাঠী প্রশিক্ষণরত শিক্ষক শিক্ষিকাদের মধ্যেও বাবলুর জনপ্রিয়তা ও গ্রহণযোগ্যতা লক্ষণীয়।”

এদিন ক্লাসে ক্লাসে ঘুরে দেখা যায় উপস্থিত সব প্রশিক্ষণ রত শিক্ষক শিক্ষিকারাই অধ্যাপক মহাশয়ের তত্ত্বাবধানে নিয়ম মেনে শিখন পরিকল্পনা ও শিখন সহায়ক উপকরণ ব্যবহার করে হাতেকলমে আধুনিক শিখনের পাঠ গ্রহণ করছেন এবং ছাত্রছাত্রী রাও তাতে পূর্ণ উৎসাহের সঙ্গে যোগদান করছে।

এদিনের বিদ্যালয় কেন্দ্রিক প্রশিক্ষণে উপস্থিত ছিলেন আমডাঙা আদর্শ টিচার্স ট্রেনিং কলেজ এবং বারাসাত বিএড কলেজের শিক্ষার্থী শিক্ষক শিক্ষিকাবৃন্দ। এদিনের প্রশিক্ষণে উপস্থিত ছিলেন আমডাঙা কলেজের তরুন ছাত্র জাহির উদ্দিন মোল্লা, বাংলা বিভাগের উদ্যমী ছাত্রী শাহিনা ইয়াসমিন, পুজা সাউ, সুকুমার ঘোষ, কর্মঠ ছাত্র বাপি দত্ত, প্রিয়াঙ্কা বিশ্বাস, রাজীব ঘোষ, প্রসেনজিৎ, উজ্জয়ন্ত চক্রবর্তী, বিকাশ সেন, প্রিয়াঙ্কা বাইত্যা সহ আরো অনেকে।

অবক্ষয়ের যুগে যখন কর্তব্য না করে মানুষ সহজ ফল লাভের আশায় ব্যস্ত তখন কঠোর পরিশ্রমী তরুন শিক্ষক শিক্ষিকাদের এই উদ্যম যে নজির সৃষ্টি করল তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। এদিন প্রাকটিস টিচিং এর শেষে বাংলা মেথডের প্রশিক্ষণরত শিক্ষিকা শাহিনা বলেন – “আমাদের মেন্টর বাবলু স্যারের মত স্যার সঙ্গে কাজ করা শিক্ষণীয় বিষয়। উনি এতো ব্যস্ততার মধ্যেও যে ভাবে নিয়ম মেনে এসে সমস্ত ক্লাস নেন তা আমাদের অনুপ্রাণিত করে।”

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট