ইন্টারনেট দুনিয়া এখন “মোমো” আতঙ্কে


রবিবার,১২/০৮/২০১৮
1230

রাজু আলম---

না , এ “মোমো” খাওয়ার মোমো নয়, এই মোমো হলো একটি ইন্টারনেট সোশ্যাল মিডিয়া গেম। যার আতঙ্কে সারা বিশ্ব ভয়ভীত। কি এই মোমো চ্যালেঞ্জ তা জেনে নেওয়া যাক।

মোমো চ্যালেঞ্জ হলো মূলত একটি সোশ্যাল একাউন্ট , যা হোয়াটস্যাপ , ফেইসবুক, ইউটুবেই একটিভ আছে। এই একাউন্ট বিশ্বের তিনটি দেশের মোবাইল নম্বর এর সাথে সংযুক্ত আছে। যে তিনটি দেশ হলো জাপান , কলাম্বিয়া এবং মেক্সিকো। ফোন নম্বর তিনটি হলো +৮১৩৪xxxx৫৩৯, +৫৭৩১-xxxx২৫৬৯, +৫২৬৬৮xxxx৩৭৯ , ইচ্ছা করে এখানে মাঝখানের চারটি নামম্বার মুছে দেওয়া হয়েছে যাতে কেউ এই আর্টিকেল পড়ে ফোন বা মেসেজ না করতে পারে।

মোমো চ্যালেঞ্জ শুরু হয় কিভাবে ?

উপরের নম্বর গুলি থেকে মূলত Hi /Hello মেসেজ আসে এবং কেউ যদি সেই মেসেজ এর উত্তর দেয়, তাহলে মোম চ্যালেঞ্জ শুরু হয়ে যায়। এর পর ওই নম্বর বা একাউন্ট থেকে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ আসা শুরু হয়। এর পর “মোদারবোট” নামে একটি ভয়ানক ক্যারেক্টার এর ছবি আসা শুরু হয় এবং তার সাথে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ ও আসতে থাকে। এই চ্যালেঞ্জ প্রথম কোথায় শুরু হয় তা জানা না গেলেও ইউনাইটেড স্টেটস , ফ্রাঞ্চ , জার্মানি এই চ্যালেঞ্জ এর শিকার হয়েছে ইতিমধ্যে। আর্জেন্টিনাতে একটি ১২ বছরের মেয়ে সম্প্রতি এইমোমো চ্যালেঞ্জ জন্য আত্মহত্যা করেছে। “ব্লু হোয়েল” এর মতো এই চ্যলেঞ্জ ও ইয়ং জেনারেশন দের টার্গেট করা হচ্ছে যারা সাধারণত না জেনে শুনে বিভিন্ন পোস্ট শেয়ার করে এবং যারা বেশিরভাগ একাকিত্বে ভোগে।

এই আর্টিকেল যারা পড়ছে , তাদের কে বলবো হোয়াটস্যাপ বা অন্য কোনো সোশ্যাল মিডিয়া তে কোনো অপরিচিত নম্বরে উত্তর দিতে গেলে আগে ভালো করে দেখে নেওয়া ভালো। বাবা -মা দের বলবো বিষয় টা নিয়ে ছেলে -মেয়ে দের সাথে আলোচনা করা ও তাদেরকে সাবধান করা।

এবারবাংলা এক্সপ্রেসআপনার মোবাইলে, ডাউনলোড করুন বাংলা এক্সপ্রেস ফ্রি মোবাইল অ্যাপ

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট