বিশ্বের সবথেকে দীর্ঘতম সাঁতার প্রতিযোগীতায় ভারতবর্ষের একমাত্র মহিলা প্রতিযোগী চুঁচুড়ার তিয়াসা মন্ডল


মঙ্গলবার,২১/০৮/২০১৮
574

সুমন করাতি---

বিশ্বের সবথেকে দীর্ঘতম সাঁতার প্রতিযোগীতায় ভারতবর্ষের একমাত্র মহিলা প্রতিযোগী চুঁচুড়ার তিয়াসা মন্ডল। প্রসঙ্গত আগামী ২৬শে আগষ্ট মুর্শিদাবাদ সুইমিং অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত ৭৫ তম ওয়ার্ল্ড লংগেষ্ট সাঁতার প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। জঙ্গীপুর থেকে বহরমপুর পর্যন্ত নদীবক্ষে ৮১ কিলোমিটার এই সাঁতার প্রতিযোগীতাই এযাবৎ কালে বিশ্বের দীর্ঘতম সাঁতার প্রতিযোগীতা হিসাবে স্বীকৃতি লাভ করেছে। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এই প্রতিযোগীতায় পুরুষ ও মহিলা প্রতিযোগীরা অংশগ্রহন করে।

উল্লেখ্য এই প্রতিযোগীতায় পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা কোন বিভাগ নেই। এখানে ছেলে মেয়েরা একসাথে অংশগ্রহন করে। এই প্রতিযোগীতায় এবারে মোট প্রতিযোগীর সংখ্যা ২৫। যার মধ্যে ২৩ জন পুরুষ এবং দু’জন মহিলা। সেদিক থেকে দেখতে গেলে আর্জেন্টিনার সাথে সমগ্র বিশ্বের মধ্যে একমাত্র মহিলা প্রতিযোগী চুঁচুড়ার তিয়াসা। কার্যত এবছর এই প্রতিযোগীতায় ভারতের মহিলাদের হয়ে ভারতের নাম জিইয়ে রাখলো তিয়াসাই। চুঁচুড়া কনকশালীর বাসিন্দা সামান্য ইলেকট্রিক মিস্ত্রি অভিজিৎ মন্ডলের মেয়ে তিয়াসা শ্রীরামপুর কলেজের কলাবিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

মা ছবিতা মন্ডল গৃহবধু। দাদা অরিজিৎ মন্ডলকে দেখেই মাত্র সাড়ে চার বছর বয়সে তিয়াসার জলে নামা। ন’বছর বয়স থেকেই জাতীয় স্তরে অংশগ্রহন করা। শুধু অংশগ্রহন বললে ভুল হবে তিয়াসা আপাতত কুড়িটির বেশি জাতীয়স্তরের সাঁতারে অংশগ্রহণ করে কোননা কোন মেডেল নিয়ে ঘরে ফিরেছে। তিয়াসার পছন্দ বেশি দুরত্বের সাঁতার। ছোটবেলা থেকে তাই তাঁর স্বপ্ন ইংলিশ চ্যানেল পার হওয়া। সেই স্বপ্ন চোখে নিয়েই ৮১ কিলোমিটারের মত কঠিনতর সাঁতার প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহন করতে চলেছে সে। যথেষ্ট ভালো ফল করার আশা নিয়ে চিনসুরা সুইমিং ক্লাবের এই সাঁতারু দিনরাত এক করে গঙ্গাবক্ষে প্রশিক্ষন নিয়ে চলেছে।

দুই কোচ তিয়াসার পাশে থাকলেও তার সর্বক্ষনের সাথী দাদা অরিজিৎ মন্ডল। পয়সার অভাবে অরিজিৎ বেশীদূর পৌঁছতে না পারলেও সে চায় বোনের লড়াই যেন কোনদিন না থেমে যায়। অদম্য ইচ্ছাশক্তি আর দাঁতকামড়ে জলে পড়ে থাকার জেদ আজ তিয়াসাকে এই জায়গাতে আনলেও আর্থিক অনটন কিন্তু সর্বদা তাড়া করে বেড়ায় তার পরিবারকে। তিয়াসার মা ছবিতা মন্ডল বলেন আজ অবধি সরকারী সহযোগিতা পেলাম না। পেলাম না কোন বেসরকারী স্পন্সর। তাই ছবিতাদেবী বলেন কোনরকম সহযোগীতা না পেলে হয়ত তিয়াসার আশা একদিন থমকে যাবে।

এবারবাংলা এক্সপ্রেসআপনার মোবাইলে, ডাউনলোড করুন বাংলা এক্সপ্রেস ফ্রি মোবাইল অ্যাপ 

 

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট