একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে সৎবাবা গ্রেফতার


মঙ্গলবার,২৮/০৮/২০১৮
475

বাংলা এক্সপ্রেস---

দক্ষিণ ২৪ পরগণা: একাধিকবার ধর্ষণ করার অভিযোগে সৎবাবা কে গ্রেফতার করলো পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে  দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার ক্যানিং থানার তালদি গ্রাম পঞ্চায়েতে পশ্চিম খাসকুমড়োখালি গ্রামে।ধৃতের নাম সেকেন্দার মোল্ল্যা।অভিযোগের ভিত্তিতে ক্যানিং থানার পুলিশ সেকেন্দার মোল্ল্যা কে গ্রেফতার করেছে।

মহেশতলা থানার সন্তোষপুরের বৈদ্যপাড়ার বাসিন্দা সেকেন্দার মোল্ল্যা তার সৎকন্যা কে দিন কুড়ি আগে ক্যানিংয়ে তালদি এলাকায় বিয়ে দেন। বিয়ের আগে থেকেই সৎবাবার অত্যাচারের জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্কে জর্জরিত ঐ সৎকন্যা বিয়ের পর সমস্ত ঘটনার কথা তার স্বামীকে সে জানায়।

বিয়ের পর সৎবাবা সেকেন্দার মোল্ল্যা নতুন জামাই মেয়ে নিজের বাড়ীতে নিয়ে যাওয়ার জন্য  ক্যানিংয়ে মেয়ের বাড়ীতে আসলে মেয়ে বাপের বাড়ীতে যেতে অস্বীকার করে। এমনই পরিস্থিতিতে গ্রামবাসীরা সেকেন্দার মোল্ল্যাকে ঘিরে ধরে মেয়ে কেন বাপের বাড়ীতে যেতে নারাজ জানতে চাইলে সেই মুহূর্তে সেকেন্দার মোল্ল্যা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। মিলিত গ্রামবাসীরা অভিযুক্তকে ধরে বেধড়ক মারধোর করলে সৎমেয়েকে একাধিকবার ধর্ষণ করার কথা স্বীকার করে। আরো জানা গেছে চাপে পড়ে সেকেন্দার মোল্ল্যা তার গোপন কথা ও বলে দেয় গ্রামবাসীদের কাছে। গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন মেয়ে কে জোর করে নিজের বাড়ীতে নিয়ে গিয়ে জামাই এবং মেয়ের শ্বশুর বাড়ীর লোকজনের নামে মিথ্যা মামলা করে খোরপোশ নেওয়া এবং মেয়ের সাথে দৈহিক সম্পর্ক স্থাপন করাই ছিল সেকেন্দার মোল্ল্যার ছক।

স্থানীয় সুত্রে আরো জানা গেছে সেকেন্দার মোল্ল্যার দ্বিতীয় স্ত্রীর আরো তিন মেয়ের সাথেও এমন নক্করজনক ঘটনা ঘটেছে। এমন ঘটনা হতবাক গ্রামবাসীরা সেকেন্দার মোল্ল্যাকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়ে অভিযুক্তের ফাঁসীর দাবী তুলেছেন। ক্যানিং থানার পুলিশ অভিযুক্ত কে আদালতে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট