উত্তর দিনাজপুরের বহু জায়গার কৃষকদের দিন দিন জনপ্রিয়তা পাচ্ছে  কলা চাষের


রবিবার,০২/০৯/২০১৮
442

পিয়া গুপ্তা---

উত্তর দিনাজপুর: উত্তর দিনাজপুরের কালিয়াগঞ্জ;হেমতাবাদ,রায়গঞ্জ ,ইটাহার সহ বহু জায়গার কৃষকদের দিন দিন জনপ্রিয়তা পাচ্ছে  কলা চাষের। আর এ কলা চাষে ভাগ্য বদল হচ্ছে চাষিদের। যেখানে অন্যান্য ফসল করে লাভবান হতে পারছে না স্থানীয় চাষিরা, সেখানে কলা চাষে সফলতার হাসি এনেছে বহু এলাকার চাষিদের মুখে। ফলে দিন দিন বাড়ছেই কলার বাগানের সংখ্যা। সম্পৃক্ত হচ্ছেন নতুন নতুন চাষিরা। একরের পর একর কলার বাগান করে বছর শেষে মোটা অংকের টাকা উপার্জন করতে পারায় স্থানীয় অনেক যুবকেরা পেশাও বদলাচ্ছেন। অন্য পেশা ছেড়ে আসছেন কলা চাষে। কালিয়াগঞ্জের মুস্তাফানগর,ধনকৈল সহ বহু জায়গার গিয়ে দেখা বিঘার পর বিঘাবিস্তৃত জমিতে কলার বাগান।

পরিচর্যায় ব্যস্ত বাগানের মালিক-কর্মচারীরা। কলা  চাষিদের  সাথে আলাপ করলে তারা জানান, অন্যান্য ফসল উৎপাদনের চেয়ে কলার চাষে খরচ কম এবং লাভও বেশি। এ এলাকার যেসব জমিতে আগে ধান চাষ হতো এখন সেখানে করা হচ্ছে কলার বাগান। চাষিরা জানান তাদের কলা কিনতে দূর দূরান্ত থেকে বহু মানুষ আসেন।পূজো হোক কিংবা বিয়ে বাড়ি সব কিছুতেই এখন শুধু কলা না অনেকে কলার গাছের ও কিনে নিয়ে যান। ফলে শুধু কলা না কলা গাছের ও চাহিদা খুব।। মুস্তাফানগরের স্থানীয় চাষি আবদুল  মোল্যা জানান, তিনি তিন বছর ধরে কলার চাষ করে আসছেন।পূর্বে  ভালো লাভ হয়েছে। এ জন্য এ বছর নিজের এক বিঘা জমির পুরোটাতেই কলার বাগান করেছেন।

মাসখানেক পর তার বাগানের কলা বিক্রির উপযোগী হবে বলে তিনি জানান। তিনি জানান, গত মৌসুমে কলা বিক্রি করে প্রায় দুই লাখ টাকা লাভ হয়েছিল তার। সব মিলিয়ে অন্যান্য ফসলের চেয়ে লাভের অংক একটু বেশি হওয়ায় কলা চাষ জনপ্রিয়তা অর্জন করছে। কলা চাষে সফল যুবক জাকির হোসেন বলেন, প্রথমে নিজেদের অল্প কিছু জমিতে পরীক্ষামূলক ভাবে কলা চাষ শুরু করি। সে বছর বাগান থেকে ভালো টাকা লাভ এসেছিল। এরপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি। এবছর অন্যের জমি ভাড়া নিয়েও কলার বাগান করেছি। তবে সমস্যাও রয়েছে অনেক, ঝড়-বৃষ্টিতে কলার চারা ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

পোকায় ধরলে কলা নষ্ট হয়ে যায়। তিনি আরও জানান, স্থানীয় বাজারের চাহিদা শেষে অনেক দূর-দূরান্তের বাজারেও কলা বিক্রি হয়। সাধারণত পাইকারি বিক্রেতারা কলা পাকার মৌসুমে পুরো বাগান ধরে কিনে নেয়।কালিয়াগঞ্জের বিভিন্ন বাজারে এখান থেকে কলা যায়। তাছাড়া বাগান থেকে খুচরাও বিক্রি করা হয় স্থানীয় দোকানিদের কাছে। কলা চাষে আগ্রহীদের সংখ্যা বাড়ছে। খরচের তুলনায় লাভ বেশি হওয়ায় চাষিরা অন্যান্য ফসল বাদ দিয়ে কলা চাষ করছেন। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ধান, পাটসহ রবিশস্য চাষে অনাগ্রহীরাই মূলত কলা চাষে ঝুঁকেছেন। কলা চাষে কৃষি কর্মকতারা চাষিদের নানা ধরনের পরামর্শ ও দিয়ে থাকেন।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট