ইলিশ চিংড়ি উৎসব পশ্চিম মেদিনীপুরে


শুক্রবার,০৭/০৯/২০১৮
391

বাংলা এক্সপ্রেস---

পশ্চিম মেদিনীপুর:- “বাঙালির বারো মাসের তেরো পার্বনের ইলিশ উৎসব অনুষ্ঠিত হলো মেদিনীপুর শহরের বিদ্যাসাগর হলে,জিভে জল আনা এই ইলিশ ও চিঙড়ির স্বাদ পেতে ভিড় ঘটি ও বাঙালিরা”বৃষ্টি পড়তেই ইলিশের রমরমা বাজারে,ছোটো বড় ইলিশের দাম রয়েছে সাধ্যের মধ্যে। এবার বাঙালির বারো মাসের তেরো পার্বনের অন্যতম পার্বন হিসাবে ইলিশ ও চিংড়ি উৎসব আয়োজন করলো খাদ্য রসিক বাঙালি,এই উৎসব ছিল এই বছর দ্বিতীয় বছর।এপার বাংলা ওপার বাংলা মিলিয়ে প্রায় ১৫০ রকমের ইলিশ ও চিংড়ির পদ এই দিনের স্টলে তুলে ধরা হয়।

ইলিশ ভাপা ,ইলিশের ঝাল ,ইলিশ পাতুরি ,ইলিশ বিরিয়ানি সুস্বাদুপদ তো রয়েছে আরো রয়েছে ইলিশ পিঠে ,ডাব ইলিশ ,ইলিশের মেঘমোল্লার ,ইলিশের ঝাল ,ইলিশ কাঠি ,ইলিশের লেমন রাইস ,ইলিশ বেগুনের ঝোল ,পাতা পোড়া ইলিশ রয়েছে আরো ও রয়েছে মুখরোচক ইলিশের পাকোড়া। চিংড়ি আইটেম কোন অংশে কম ছিল না সকাল বেলার ব্রেকফাস্ট হিসাবে ছিল চিংড়ি পকোড়া,চিংড়ি ভলকেনো দুপুরের মেনু তেও ছিল সুস্বাদু পদ চিংড়ি মালাইকারি ,চিংড়ি পোস্ত ,চিংড়ি ভাপা , ডাব চিংড়ি ,প্রন৫৬,স্টাফ প্রন ডিনারে ও কোন খামতি রাখেনি তারা , রাতের জন্য ছিল চিংড়ি দোপিঁয়াজা ,দই ইলিশ , ইলিশ আম কাসুন্দি ,ইলিশ কোর্মা এছাড়াও এবারের ইলিশ মোমো ছিল এইদিনের খাদ্য রসিকদের স্পেশাল ডিশ।আজকে ইলিশ ও চিংড়ির পদ চাখতে চাখতে বাঙালিরা জানালেন তারা ঘটি বাঙালি থেকে কোন অংশে কম যায় না।উদ্যোক্তা স্নেহাশিস ভৌমিক জানালেন দ্বিতীয় বছরে ও তারা এই ধরণের অনুষ্ঠান করতে পেরে খুশি,এটা চলবে আগামী ৯ সেপ্টেম্বর পৰ্যন্ত।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট