প্রশাসনের স্বতঃফূর্ত উদ্যোগে নাবালক-নাবালিকার বিয়ে বন্ধ হল


রবিবার,০৯/০৯/২০১৮
329

বাংলা এক্সপ্রেস ---

দীর্ঘ প্রায় দুবছর ধরে প্রেমপর্ব চলছিল,বাড়ির লোক বিয়ে ঠিক করেছিলেন অন্যত্র এক পাত্রের সাথে।অন্যত্র পাত্র ঠিক করায় বাড়ির লোককে কিছু না জানিয়ে ছেলের বাড়িতে চলে এসেছিল নাবালিকা মেয়েটি ,ছেলের বাড়ি থেকে ও অরাজি ছিল ,কিন্তু ছেলের জেদের কাছে হার মানে তার বাবা,মা। শেষে বিয়ের আয়োজনও করেন।এমনই টানটান উত্তেজনার মধ্যে খবর পৌছায় ক্যানিং চাইল্ড লাইনের কাছে।রবিবার দুপুরে এমনই নাটকীয় খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ক্যানিং ২ বিডিও এবং জীবনতলা থানাকে তাঁরা বিষয়টি জানান।এরপর জীবনতলা থানার এস আই মলয় দাশ কে সাথে নিয়ে ক্যানিং চাইল্ড লাইনের সদস্যরা পৌঁছে যায় বিয়ে বাড়িতে। পুলিশ এবং চাইল্ড লাইনের সদস্যদের দেখে পাত্র পাত্রি দে দৌড় ।

পেশায় দিন মজুর নাবালকের বাবা তিন ছেলে ও দুই মেয়ে তিন মেয়ের বিয়ে আগেই হয়ে গেছে ।নাবালক ছেলে পেশায় দর্জির কাজ করে মেয়েটির সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমপর্ব চালিয়ে আসছিল। অন্যদিকে নাবালিকা মেয়েটির বাবার দুই মেয়ে এবং একছেলে পেশায় ফার্নিচার ব্যবসায়ী ।মেয়েটি হোমরা পলতা হাইস্কুলের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী । পরে তাদের কে ধরে এনে পুলিশ এবং চাইল্ড লাইন নাবালক নাবালিকা বিয়ে কুফলগুলি বোঝালে উভয় পরিবার ও নাবালক নাবালিকারা নিজেদের ভুল বুঝতে পারে এবং তারা মুচলেকার মাধ্যমে নিজেদের ভুলে কথা স্বীকারও করেন। নাবালিকা মেয়েটি জানায় যে যতদিন না নিজের পায়ে দাঁড়াবো ততদিন পর্যন্ত বিয়ে করবেনা । অন্যদিকে ক্যানিং চাইল্ড লাইনের সদস্য বান্টি মুখার্জী জানান সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে জীবনতলা থানা এলাকায় এই নিয়ে দশটিরও বেশী নাবালক-নাবালিকা বিয়ে বন্ধ করা হয়েছে ।এই কাজে ব্লক প্রশাসন এবং পুলিশ যে স্বতঃফূর্ত ভাবে এগিয়ে এসেছেন তা প্রশংসনীয়।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট