অসমে তৃণমূল কংগ্রেসের অফিস উদ্বোধন, মমতার লড়াইয়ে অসমবাসীকে সামিল হওয়ার আহ্বান ফিরহাদ হাকিমের


বৃহস্পতিবার,১৩/০৯/২০১৮
68

বিকাশচন্দ্র ঘোষ---

কলকাতা: রাষ্ট্রীয় নাগরিক পঞ্জির খসরা তালিকায় নাম নেই ৪০ লক্ষের বেশি বাসিন্দার। এই বাদ পড়া মানুষের বেশির ভাগই বাঙালি। এই ঘটনার প্রতিবাদে দেশের মধ্যে প্রথম সোচ্চার হয়েছিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এনআরসি ইস্যুকে জাতীয় ইস্যুতে পরিনত করেন তিনি। স্বাভাবিক ভাবেই এই প্রতিবাদি চরিত্রের মধ্য দিয়ে জননেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অসমবাসীর কাছে বিশেষ করে সেখানকার বাঙালিদের কাছে বিশেষ সমীহ আদায় করে নিতে পেরেছেন। এবার তৃণমূল কংগ্রেসকেও অসমে শক্তপোক্ত করে সাংগঠনিক শক্তিতে বলিয়ান হত। সচেষ্ট হয়েছে তৃণমূল। আর সেই লক্ষ্যে বৃহস্পতিবার অসমের গুয়াহাটিতে দলীয় অফিসের সূচনা করলেন তৃণমূলের অন্যতম নেতা, পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী তথা অসমের দায়িত্বপ্রাপ্ত তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকি। এদিন দলীয় কনফারেন্সেও অংশগ্রহন করেন তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে লড়াই শুরু করেছেন সেই লড়াইয়ে অসমবাসীকেও অংশগ্রহন করার আহ্বান জানান তিনি। তাঁর বক্তব্য শুনতে যথেষ্টই ভিড় হয়েছিল।

উল্লেখ্য, অসমে তৃণমূল সংগঠন অনেক অগেই গড়ে উঠেছিন। দলের একজন বিধায়কও ছিলেন। তিনি দীপেন পাঠক। অবশ্য গত বিধানসভা ভোটে পরাজিত হন তিনি। দলের রাজ্য সভাপতি পদেও ছিলেন দীপেনবাবু। কিন্তু এনআরসি ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরর অবস্থানের বিরোধিতা করে দল ছাড়েন তিনি। এরপর কমিটি ভেঙে দেন তৃণমূলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। আবার নতুন কমিটি গঠনের তোড়জোর শুরু হয়েছে।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট