ঘুসিকাটায় ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা


বৃহস্পতিবার,২০/০৯/২০১৮
300

সাদ্দাম হোসেন মিদ্দে---

মিনাখাঁ: বিদ্যাধরী নদীতে মিনাখাঁর ঘুসিকাটায় অনুষ্ঠিত হল নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা।বিশ্বকর্মা পূজোর বিসর্জন উপলক্ষে এখানে এই প্রতিযোগিতা হয়ে আসছে।এদিন উপস্থিত ছিলেন,বসিরহাটের সাংসদ ইদ্রিস আলি,মিনাখাঁর বিধায়ক উসারাণী মন্ডল,মন্ত্রী জাভেদ আহমেদ খান,নবদয় শিশু একাদেমির কর্ণধার সাহানুর ইসলাম প্রমুখ।

এখানে শুধুমাত্র মিনাখাঁর মানুষ ভিড় জমান,এমনটা নয়।ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ দেখতে ভিড় করেন হাড়োয়া,দেগঙ্গা,সন্দেশখালি,রাজারহাট,ভাঙড়,ক্যানিং,জীবনতলা,বাসন্তি প্রভৃতি এলাকার মানুষজন।সম্প্রতির এক অনন্য নজির চোখে পড়ে এখানে।হিন্দু ধর্মের রীতি অনুযায়ি বিসর্জন উপলক্ষে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।কিন্তু এখানে ইসলাম ধর্মাবলম্বী মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষরা বেশি ভিড় জমান।

সাংসদ ইদ্রীস আলি প্রতিবছরই নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা দেখতে হাজির হন।তার কাছে এটি জনসংযোগ রক্ষার মঞ্চ হয়ে ওঠে।তিনি মিলেমিশে একাকার হয়ে যান একেবারে আমজনতার সাথে।সাধারণ যাত্রীদের সঙ্গে তিনিও বাইচ নৌকায় উঠে পড়েন।সাধারণ মানুষ তাদের সাংসদকে বন্ধুর মতো কাছে পেয়ে আপ্লুত হন।তারা সাংসদের কাছে আবদার করতে থাকে তার সঙ্গে একটি সেল্ফি তোলার।নির্দিধায় তিনি তাদের সঙ্গে ফেলফিতে মাতেন।কাছ থেকে ইদ্রীস আলিকে দেখে মনেই হচ্ছিল না যেন,তিনি একজন সাংসদ সদস্য।

ইদ্রীস আলি বলেন,এখানে হাজার হাজার মানুষ যেভাবে ভিড় জমায়,যেভাবে হিন্দু-মুসলিম সম্প্রতি গড়ে ওঠে,তার জন্য আমার প্রতি বছর এখানে আসা।সাধারণ মানুষ এখানে সাম্প্রদায়িকতার উর্ধে উঠে উৎসব মুখর পরিবেশ গড়ে তোলে,যেটা এক কথায় অনন্য।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট