ভিন ধর্মের ছেলেরা বাবার সৎকার্যে অংশগ্রহন করার অপরাধে যুবতী মেয়ের চুল কেটে নেওয়ার অভিযোগ


রবিবার,২৩/০৯/২০১৮
415

সুমন করাতি---

চুঁচুড়া: ভিন ধর্মের ছেলেরা বাবার সৎকার্যে অংশগ্রহন করার অপরাধে যুবতী মেয়ের চুল কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠলো পাড়ার মাতব্বরদের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, সম্প্রতি অত্যাচার এতটাই বেড়েছে যে বৃদ্ধা মাকে নিয়ে মেয়ে রিতিমত গৃহবন্দী অবস্থায় রয়েছে। অভিযোগ তৃণমূল করা কিছু মাতব্বরদের হাতে এমনই তালিবানী শাসনের শিকার চুঁচুড়ার মতিঝিল এলাকার বাসিন্দা পামেলা হাটি(৩৮)। পামেলাদেবী অবিবাহিত। তিনি তাঁর সত্তোরোদ্ধ বিধবা মা নমিতা হাটিকে নিয়ে থাকেন। পামেলার বাবা প্রাক্তন ডানলপ শ্রমিক করুনাময় হাটি বিগত ৬মাস আগে গত হয়েছেন। অভিযোগ এরপর থেকেই হাটি পরিবারের ঘনিয়ে আসে অন্ধকার। পাড়ার মাতব্বরদের কাছ থেকে জায়গা ছেড়ে দেওয়ার জন্য হুমকি আসতে শুরু করে।

পামেলার অভিযোগ বাবার সৎকার্যে কেন এলাকারই কিছু ভিন ধর্মের মানুষ অংশগ্রহন করেছে এই অপরাধে আমার উপর অত্যাচার শুরু করে পাড়ার মাতব্বরেরা। ঘড় থেকে বাইরে বেরোলেই উড়ে আসত কটুক্তি, প্রানে মেরে ফেলারও হুমকি দিতো তারা। মাস দুই আগে আমাকে রাস্তায় ধরে সেইসমস্ত মাতব্বরেরা আমার মাথার চুল কেটে নেয়। মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়। সেসময় চুঁচুড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলেও পুলিশ কোন পদক্ষেপ গ্রহন করেনি বলে অভিযোগ। জানানো হয়েছিলো স্থানীয় কাউন্সিলর সঞ্চিতা ধরকে। কিন্তু তাতেও কোন লাভ হয়নি বলে অভিযোগ। আর থানায় অভিযোগ জানানোর পর অত্যাচার আরও বাড়ে বলে অভিযোগ। পামেলা বলেন দু’দিন আগেই আমাকে চিঠি এসেছে বলে বাড়ির বাইরে বের করে মারধর করে। আমি এখন বুঝতে পেরেছি যে ওরা আমাদের বাড়ির জমিটা হাতিয়ে নেওয়ার জন্যই এরকম করছে। চোখছলছল মুখে তিনি বলেন ভাবতে পারছেন বিগত দু’মাস পর আমি ঘর থেকে বেড়িয়েছি।ঘড়ে কিছু না থাকলে কোথায় যাব? আমার বৃদ্ধা মা অসুস্থ। তাই আমাকেই বাইরে বেরোতে হয়।

বর্তমানে যা পরিস্থিতি তাতে আমাদের গৃহবন্দী হওয়ার যোগার। দু’মাস আগে পুলিশে অভিযোগ করে কোন সুরাহা তো হয়ইনি উল্টে অত্যাচার আরও বেড়েছে। তাই ভয়ে আর পুলিশের কাছে যাইনা। বৃদ্ধা নমিতা দেবী বলেন বাড়িটা ছিনিয়ে নেওয়ার মতলব কষেছে ওরা। আমার বাড়িতে কোন ছেলে নেই বলেই ওরা এত সাহস পাচ্ছে। আতঙ্কে আমরা রাতে ঘুমতে পর্যন্ত পারিনা। যদিও এবিষয়ে স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর সঞ্চিতা ধরের সাথে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। তবে এবিষয়ে চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদার বলেন পামলা সম্প্রতি আমার কাছে এসেছিলো আমি পুলিশকে বিষয়টি দেখতে বলেছি।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট