দুঃস্থ মেধাবীদের পাশে মহিলা তৃণমূল, বনধ নিয়ে বিজেপিকে আক্রমন


মঙ্গলবার,২৫/০৯/২০১৮
231

বাংলা এক্সপ্রেস---

কলকাতা: শুধু রাজনীতির জন্য রাজনীতি করা হয়, সেবা মূলক কাজের মধ্য দিয়েও মানুষের সমর্থন পাওয়া যায়। এই সত্যকে মেনে চলেন কলকাতা পুরসভার ৪৭ নম্বর ওয়ার্ডের মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী নীহারিকা মুখোপাধ্যায়। আবারও সেবামূলক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে আদায় করে নিলেন মানুষের সমীহ। পুজোর আগে সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখে দুস্থ মেধাবী পড়ুয়াদের হাতে তুলে দিলেন পুজোর পোশাক। সেইসঙ্গে পড়াশোনার খরচ বাবদ এককালীন স্কলারশিপ ও শিক্ষা সামগ্রীও তুলে দেওয়া হয় ওই পড়ুয়াদের হাতে। সুবর্ণ বনিক সমাজ হলে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সমাজের বিশিষ্টজনেরাও। ছিলেন তৃণমূল নেতা তথা কলকাতা পুরসভার বরো কমিটির চেয়ারম্যান বৈশ্বানর চট্টোপাধ্যায়, কাউন্সিলর মনজুর হাসান, সায়নদেব চট্টোপাধ্যায়, শঙ্কর দত্ত, রাজেশ চন্দ্র প্রমুখ। এই অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত হয় সুদূর চাকদহের দুই দুঃস্থ মেধাবী পড়ুয়া রাকেশ সেন ও সুস্মিতা সাহা। তাদের হাতে শিক্ষা সামগ্রী, নতুন পোশাক তুলে দেন মহিলা তৃণমূল নেত্রী নীহারিকা মুখোপাধ্যায়। পড়াশোনার খরচ বাবদ অর্থ সাহায্য করা হয় তাদের। পাশাপাশি চক্ষু পরীক্ষা শিবিরেরও আয়োজন করা হয়েছিল। মোট ২০০ জনের চক্ষু পরীক্ষা করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।

এদিনের অনুষ্ঠানে রাজ্যের বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির দিশাহীন রাজনীতির কড়া সমালোচনা করেন উপস্থিত তৃণমূল নেতারা। নীহারিকা মুখোপাধ্যায় বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারকারে হঠকারি সিদ্ধান্তে ও শুধু চমকের রাজনীতির ফলে দেশের সাধারণ মানুষের জীবন অতিষ্ঠ হয় উঠেছে। কীভাবে মানুষ ভাল থাকবে সে কথা না ভেবে ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করে ফায়দা লুটতে চাইছে। তবে বাংলার মানুষ এসব বরদাস্ত করবে না। পুজোর মুখে আবারও একটা বনধ ডেকে বিজেপি রাজ্যকে থমকে দিতে চাইছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। তিনি জানান, বাংলা সচল রেখে মানুষ বিজেপিকে উচিত শিক্ষা দেবে।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট