উতমাই চণ্ডির পাঁচ বোনের পূজো উপলক্ষে এই গ্রামের মানুষ নিরামিষ ভোজন গ্রহণ করেন


মঙ্গলবার,০২/১০/২০১৮
913

পিয়া গুপ্তা---

উত্তর দিনাজপুর: উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদ ব্লকের অন্যতম পূজো গুলোর মধ্যে একটি কাকড়শিং এলাকার দূর্গা পূজো।এই পূজোর বিশেষত্ব আরো দশটি পূজো থেকে খানিকটা আলাদা। এখান কার দেবী দূর্গা চতুর ভূজা এবং উৎমাই চন্ডী রূপে পূজিত হন।স্থানীয় লোকেদের মুখে জানা যায়  বাংলাদেশের রাজশাহী জমিদারেরা এই পূজোর প্রচলন করেছিলেন প্রায় ৫০০ বছর আগে।দেশ ভাগের আগে সাথে সাথে জমিদারের এখান কার লোকেদের পূজোর দায়িত্ব দিয়ে যান।এক সময় এই এলাকা জুড়ে ছিল ঘনজঙ্গল সময়ের সাথে এখন এখানে দেবী  উৎমাই চন্ডী পাকা মন্দির স্থাপনহয়েছে।মায়ের নামে নিজস্ব ৭-৮ বিঘা জমি রয়েছে।সেখানে সারা বছর চাষা আবাদকরে এবং সাধারন মানুষের সাহায্যে পূজো হয়।

মায়েরা পাঁচ বোন পাঁচ বোন পাঁচজায়গায় আছেন তাঁদের মধ্যে এক বোন হল উৎমাই চন্ডী। শুধু তাই নয় দেবীদের পাঁচবোনের যে পরিবার রয়েছে তাঁদের নামে মন্দির এলাকায় ১৯টি থান রয়েছে সেখানেওপূজো হয় বলে জানান মন্দিরের সেবায়েত  ফলেন দেবশর্মা ।পূজোর চার দিন গোটাগ্রাম জুড়ে চলে নিরামিষ ভোজন।অষ্টমীর ভোরে মন্দিরে ছাগ বলি হয়।এই মায়ের ঐতিয্য এতটাই যে সাধারন মানুষ যে যার মনস্কামনা নিয়ে আসে মা উৎমাই চন্ডী তা পূরন করেন বলে জানান গ্রামবাসীরা  । নবমীর দিন মহা খিচুরি ভোগের আয়োজন করা হয়।দশমিতে মিষ্টি মুখ করানোর পরে বিসর্জন দেওয়াহলেও দেবী মূর্তি মন্দিরে থাকে ।এখানকার আসা ভক্তরা মানেন মা উৎমাই চন্ডী কাউকে খালি হাতে পাঠায় না । 10 দিন পুরো গ্রাম  নিরামিষ খান এই পূজো উপলক্ষে ।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট