পশ্চিম মেদিনীপুরে স্কুল টাইমে শিক্ষক নেই দেখে বিক্ষোভ স্কুলে


বুধবার,০৩/১০/২০১৮
408

বাংলা এক্সপ্রেস---

পশ্চিম মেদিনীপুর: স্কুল টাইমে শিক্ষক নেই দেখে বিক্ষোভ স্কুলে। উপস্থিত হয়েও একমাত্র শিক্ষক স্কুল ছেড়ে চলে যাওয়ায় গন্ডগোল চন্দ্রকোনা দু নম্বর ব্লক ঝাঁকরা চক্রের রামগড় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। এদিন সাড়ে বারোটা বাজলেও স্কুলে কোনও শিক্ষক দেখতে না পেয়ে খোঁজ নেন গ্রামের কয়েকজন। জানা যায়,স্কুলে মোট ৪৯ জন ছাত্রছাত্রী শিক্ষক শিক্ষিকা মোট তিনজন।প্রধান শিক্ষক সপ্তশ্রী সিনহা অসুস্থতার জন্য ছুটিতে আছেন। অপর একজন সহ শিক্ষিকা শ্রেয়া বাঙ্গাল আজ স্কুলেই আসেননি কোনও কারন ছাড়াই। আর একজন সহ শিক্ষক হেমাঙ্ক হালদার স্কুলে আসলেও প্রার্থনা করিয়ে অসুস্থতার কারন দেখিয়ে স্কুল ছেড়ে চলে যান চিকিৎসার জন্য। প্রায় ঘন্টাখানেক পর স্কুলে আসেন। সেইসময় শিক্ষককে স্কুলে ঢুকতে বাধা দেয় অবিভাবকরা, শুরু হয় গন্ডগোল। স্কুলে পর্যাপ্ত শিক্ষকের উপস্থিতি নেই তা সত্বেও কেনো তিনি ক্ষুদে পড়ুয়াদের ছেড়ে দিয়ে বাইরে চলে গেলেন এই নিয়েই শুরু হয় গন্ডগোল। স্কুলে পড়ুয়ারা খেলছে আর মিডডে মিলের রাঁধুনিরা রান্না করছে কিন্তু স্কুলে নেই কোনও শিক্ষক।এতেই ক্ষোভে ফেটে পড়ে অবিভাবকরা।
যদিও স্কুলের সহ শিক্ষক হেমাঙ্ক হালদারের বক্তব্য অসুস্থতার জন্য প্রার্থনা করিয়ে চন্দ্রকোনা হাসপাতাল চলে যায় চিকিৎসার জন্য, এব্যাপারে স্কুলের ডিইও ছায়া কোলে ম্যাডামকে দেখতে দিয়ে গিয়েছিলাম এবং রাঁধুনিদেরকেও বলে গিয়েছিলাম। অন্য দুই শিক্ষকদের অনুপস্থিতি সত্বেও স্কুল চলাকালিন তিনি একা থাকা সত্বেও কেনো ছেড়ে চলে গেলেন এই প্রশ্নই তুলছে গ্রামের মানুষজন। অবিভাবকদের অভিযোগ এরকম প্রায়শই হয়ে থাকে স্কুলে মর্জিমতো শিক্ষকেরা স্কুলে আসেন আজকে তার প্রমান। আমরা বিডিও ও এসআইকে বিষয়টি পুরো ঘটনাটি জানাছি।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট