কুইজ প্রতিযোগিতা কেশপুরের চকমসুরে পুজোয়


রবিবার,২১/১০/২০১৮
380

বাংলা এক্সপ্রেস---

পশ্চিম মেদিনীপুরঃ কেশপুরের চকমসুরে দুর্গা পূজায় কুইজ ঘিরে উন্মাদনা…..বিগত বছরগুলির মতো এবারেও ধুমধামের সঙ্গে অনুষ্ঠিত হলো কেশপুর ব্লকের চকমনসুর গ্রামের দুর্গোৎসব । এবারে এখনকার পুজো পা দিল ৪৪তম বর্ষে । বিগত কয়েক বছর মতো এবারেও নবমীর সন্ধ্যায় পূজা মন্ডপে আয়োজিত, মেদিনীপুর কুইজ কেন্দ্র সোস্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটি পরিচালিত কুইজ ঘিরে ছিল বিপুল উন্মাদনা। গ্রামগঞ্জে কুইজের এতটা উন্মাদনা ভাবাই যায় না । বহু প্রতিকূলতা কাটিয়ে প্রতিযোগীরা অংশ নিতে এসেছিলেন। একদিকে পিংলা , বালিচক থেকে যেমন প্রতিযোগী এসেছিলেন তেমনি অন্যদিকে নাড়াজোল , ন্যাড়াদেউল থেকেও এই কুইজে যোগ দিতে কুইজ পাগল কুইজাররা ছুটে এসেছিলেন । কেউ খেয়া পেরিয়ে ,কেউ বাসে করে এসেছিলেন এই প্রতিযোগিতায় যোগ দিতে। ফিরে যেতে পারবেন কিনা জানা ছিলো না ওঁদের ।

এই দিনের কুইজ সঞ্চালনার দায়িত্বে থাকা কুইজ মাস্টার মনিকাঞ্চন রায় , চঞ্চল হাজরা ও সেলিম মল্লিকরা এক দুরন্ত কুইজ উপস্থাপন করলেন । নির্ধারিত সময় উপেক্ষা করে দীর্ঘক্ষণ চললো ম‍্যারাথন এই কুইজ প্রতিযোগিতা । দর্শকের আবদার উপেক্ষা করতে পারেননি কুইজ মাস্টার মনিকাঞ্চন রায় চঞ্চল হাজরারা । হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলার পর প্রথম হন রোহিত বানুয়া ও সুবিমান মন্ডল, দ্বিতীয় হন কৃষ্ণেন্দু জানা ও সিদ্ধার্থ দাস , তৃতীয় হন স্থানীয় প্রতিযোগী কৃষ্ণেন্দু সামন্ত এবং কৃষ্টি মন্ডল । কুইজ প্রতিযোগিতার সফল প্রতিযোগীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন পুজো কমিটির অন্যতম উদ্যোক্তা সন্দীপ মন্ডল । এদিনও এই পুজোর বিশেষত্ব স্বরূপ ছিল বিশেষ খিচুড়ি ভোগের আয়োজন । পুজোকমিটির উদ্যোক্তাদের কথায় প্রায় ৩০০০ জনের বেশি মানুষের জন্য খিচুড়ি ভোগের আয়োজন করা হয়েছিল । পার্শ্ববর্তী গ্রামগুলি থেকে মায়ের অন্যভোগ গ্রহণে ভীড় জমন দর্শনার্থীরা ,তার উপর উপরি পাওনা ছিল এই জমজমাট কুইজের আসর । সব মিলিয়ে চকমসুরে নবমীর সন্ধ্যা হয়ে উঠেছিল মধুর মিলন মেলার স্বর্ণালী সন্ধ্যা।

 

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট