গ্রামে জুড়ে শহিদ দুই ছাত্রের ব্যানার স্কুল না খুললে আগামীতে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি দ্বারিভিটার মানুষদের


সোমবার,২৯/১০/২০১৮
271

পিয়া গুপ্তা---

উত্তর দিনাজপুর: এক মাসেরও বেশি হয়ে গেছে দাড়ি ভিটাতে দুই ছাত্রের মৃত্যু কান্ডের, তবে এখনো সঠিক বিচারের অপেক্ষায় দিন গুনছেন শহিদ দুই ছাত্রের পরিবার ও দ্বারিভিটা গ্রামের সাধারণ মানুষ।সুবিচারের আশায়  আজ ও  মাটি চাপা অবস্থায় রয়ে গেছে মৃত রাজেশ ও তাপস এর মৃতদেহ।
দুর্গা পুজোর আনন্দ যদিও এবার পুরো ফিকে হয়ে গিয়েছে দাড়ি ভিটার মানুষজনের কাছে আর কিছুদিন পরেই কালীপুজো।তাই মৃতদের বাড়ির সংলগ্ন আশে পাশের এলাকায় এবারে কালিপূজো হবে না  বলে বক্তব্য এলাকার সাধারণ মানুষের।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও শোকের আবহ আজ ও কাটেনি। শনিবার পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারি সভা করতেই সিবি আই তদন্তের দাবী সহ স্কুল খোলার দাবী নিয়ে আবারো সরব হয়ে উঠছে এলাকার মানুষ। নিহতদের পরিবারের তরফে পুরো এলাকা জুড়ে ব্যানার লাগানো হয়েছে।সাধারণ মানুষের বক্তব্য প্রশাসন যদি স্কুল খোলার ব্যবস্থা না নেয় তাহলে আগামী দিনে গ্রামবাসীরা অন্য পথে আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবে পাশাপাশি সিবিআই তদন্ত করতে হবে এমনটাই জানালেন উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুরের দাড়ি বিট এলাকার স্থানীয় মানুষেরা।

তারা আরো জানান দ্রুত স্কুল খুলতে হবে আর তার ব্যবস্থা প্রশাসনকেই করতে হবে দাড়িভিটা তে এসে সাধারণ মানুষদের সাথে কথা বলতে হবে প্রশাসন কে। তারা আরো জানান ঘটনা যেহেতু দাড়িভিটা গ্রামে  হয়েছে তাই দাড়িভিট গ্রামে তাদের আসতেই হবে। ইসলামপুরে কোন বৈঠকে যাবে না গ্রামের মানুষ। এলাকায় গিয়ে দেখা যায় গ্রামবাসীরা তাপস বর্মন ও রাজেশ সরকারের মৃত্যুর প্রতিবাদে বিভিন্ন রকম প্ল্যাকার্ডে গ্রামজুড়ে মুড়ে দেওয়া হয়েছে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট