দিপাবলীর আগে বাজার কাঁপাচ্ছে সস্তার বৈদ্যুতিক লাইট


বৃহস্পতিবার,০১/১১/২০১৮
360

বাংলা এক্সপ্রেস---

ঝাড়গ্রাম: সামনেই আলোর উৎসব দীপাবলি। সেই দীপাবলির সন্ধ্যা আলোকময় করে তুলতে রাতদিন এক করে মাটির প্রদীপ তৈরি করেন মৃৎশিল্পীরা। ঝাড়গ্রাম জেলার একাধিক গ্রামের কয়েক হাজার পরিবার মাটির প্রদীপ ও মূর্তি তৈরি করে টাকা উপার্জনের জন্য দীপাবলির দিকে তাকিয়ে থাকে। কিন্তু, বর্তমানে বাজারে এসেছে সস্তার হরেকরকমের বৈদ্যুতিক LED লাইট ও প্রদীপ। সেই কারণে চাহিদা কমেছে মাটির প্রদীপের। ফলে সমস্যায় পড়েছেন মৃৎশিল্পীরা।

বৈদ্যুতিক LED ও প্রদীপ বিক্রেতা বলেন, মাটির প্রদীপ জ্বালাতে হলে তেল ও সলতের প্রয়োজন। আর মাটির প্রদীপের আগুন ছড়িয়ে পড়ে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তাই ক্রেতারা মাটির প্রদীপ ছেড়ে বৈদ্যুতিক প্রদীপ কিনতে ভিড় জমিয়েছেন। দামও অনেক সস্তা। সেই সঙ্গে একবার প্রদীপ কিনলে সেই প্রদীপ ব্যবহার করা যায় বহু বছর।

এক ক্রেতা জানান, আদিকাল থেকে মাটির প্রদীপ জ্বালানো হত দীপাবলিতে। সলতে বানানো ও তেল সংগ্রহ করার মধ্যে একটি আলাদা আনন্দ রয়েছে। অনেকের মতে মাটির প্রদীপের আগুন দুর্ঘটনা ঘটাতে পারে যেমন তেমনই বৈদ্যুতিক প্রদীপও দুর্ঘটনা ঘটাতে পারে। ফলে মাটির প্রদীপ হোক বা বৈদ্যুতিক প্রদীপই হোক না কেন, ব্যবহারের সময় সচেতনভাবে প্রদীপ ব্যবহার করতে হবে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট