রানি রাসমনি রোডে RPI-এর সমাবেশে দাবি উঠল,কোন বন্দ্যোপাধ্যায়- চট্টোপাধ্যায় নন, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হোক শ্যামলী দাস


সোমবার,০৫/১১/২০১৮
481

বাংলা এক্সপ্রেস---

কলকাতা: সোমবার রানি রাসমনি রোডে রিপাবলিকান পার্টি অফ ইন্ডিয়ার বিশাল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হল। শ্রদ্ধার সঙ্গে পালন করা হল রানি রাসমনির ২২৫ তম জন্মদিবস। এদিনের সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রানি রাসমনির নাতবউ তথা অতীন্দ্রনাথ দাস এস্টেটের প্রধান শ্যামলী দাস ও তাঁর নাতি অভিষেক দাস। মঞ্চে ছিলেন রিপাবলিকান পার্টি অফ ইন্ডিয়া ( RPI) – র সর্বভারতীয় নেতা তথা কেন্দ্রের এনডিএ সরকারের সমাজকল্যাণ ও ন্যয়বিচার দফতরের মন্ত্রী রামদাস আঠওয়ালে। এদিনের সভায় বক্তব্য রাখেন রানি মা শ্যামলী দাস।

বক্তব্য রাখতে গিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে ওঠেন তিনি। এমনকি চোখে জল এসে যায় তাঁর। শ্যামলী দাস বলেন, রাসমনি পরিবারের সদস্যরা কীভাবে বেঁচে আছেন তার খবর রাখেন না কেউ। বাঙালি জাতি কি ভাবে আপন সত্ত্বা নিয়ে বেঁচে থাকতে পারেন তার জন্য লড়াই করেছিলেন রানি রাসমনি। প্রতাপশালী ইংরেজদের বিরুদ্ধে সংঘর্ষে যেতেও পিছপা হননি তিনি। কিভাবে বাঙালির উন্নতি হয়, নারীরা অধিকার পান তার জন্য অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছিলেন রানি রাসমনি। সেই পরিবার নিয়ে স্বাধীনতার পর কোন সরকারই ভাবেনি। তাঁর অভিযোগ, কুশল চৌধুরীরা মিথ্যের আশ্রয় নিয়ে দক্ষিনেশ্বরকে সামনে রেখে মুনফা লুঠছেন। শ্যামলী দাস আবেদন করেন, রাজনীতির উর্ধে উঠে সকলে মিলে আসুন উন্নয়নের কাজ করি। রাজনৈতিক দলাদলি নয়, কাজ করতে হবে মানুষের জন্য।

এদিনের সভায় রিপাবলিকান পার্টির রাজ্য সভাপতি বলেন, বাংলার রাজনীতিতে কেন পিছিয়ে পড়া শ্রেণীর, মাহিষ্য সমাজের, দলিত সমাজের, মতুয়া সম্প্রদায়ের গুরুত্ব থাকবে না। কেন শ্যামলী দাস মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন না? আগামী দিনে শ্যামলী দাস যাতে মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন সেই দাবি বাংলার মানুষের কাছে তুলে ধরব। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামদাস আটওয়ালে অসমের বাঙালি নিধনের নিন্দা করেন। বাংলার ভূমিহীনদের রাজ্য সরকার জমি দান করুক দাবি জানান তিনি।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট