ভাইয়ের কপালে ফোঁটা


বৃহস্পতিবার,০৮/১১/২০১৮
63

বাংলা এক্সপ্রেস---

মুর্শিদাবাদঃ ভাইয়ের কপালে ফোঁটা দিয়ে কি কি মিষ্টি দিয়ে থালা সাজাবেন এই নিয়ে প্রায়ই চিন্তিত হতে দেখা যায় বোনেদের। মিষ্টির দোকানের শোকেসে সাজানো হরেক রকমের মিষ্টির মধ্যেও পছন্দের তালিকায় যেন কিছু একটা ফাঁক থেকে যায়। ভাই ফোঁটায় বোনেদেরকে এই চিন্তা থেকে অব্যাহতি দিতে ভাইফোঁটা স্পেশাল “মিষ্টির থালি” সাজাবেন মিষ্টি ব্যবসায়ীরা। পাঁচ, সাত, দশ এবং তের রকমের মিষ্টি দিয়ে এই থালি সাজানো হবে বলে জানিয়েছেন মিষ্টি ব্যবসায়ীরা। সুগারে আক্রান্ত ভাইয়েরা যাতে মিষ্টির স্বাদ থেকে বঞ্চিত না হয় সেইজন্য ভাইফোঁটার স্পেশাল থালিতে সুগার ফ্রি সন্দেশ রাখা হচ্ছে। থালি ছাড়াও শোকেসে রকমারি মিষ্টি ও স্ন্যাক্স থাকছে। যে সকল বোনেরা থালি নেবেন না, তারা শোকেস থেকে নিজেদের পছন্দের মিষ্টি নিতে পারবেন।

বাঙালির তের পার্বণের অন্যতম পার্বণ ভাইফোঁটা। ভ্রাতৃ দ্বিতীয়ার পূন্য তিথিতে “ভাইয়ের কপালে দিলাম ফোঁটা, যমের দুয়ারে পড়ল কাঁটা” ভাইয়ের কল্যাণ কামনায় ঈশ্বরের কাছে তিনবার এই প্রার্থনা করে তার কপালে চন্দনের ফোঁটা এঁকে দেন বোন। ধান, দূর্বা দিয়ে ফোঁটা পর্ব শেষ হতেই রকমারি মিষ্টি দিয়ে থালা সাজিয়ে ভাইকে মিষ্টি মুখ করান বোন। তাই ওইদিন ভাইয়ের পাতে রকমারি মিষ্টির পদ তুলে দিতে ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন মিষ্টি ব্যবসায়ীরা।

বহরমপুর শহরের এক মিষ্টি ব্যবসায়ী অরুন দাস বলেন, ভাইফোঁটা উপলক্ষ্যে ২০১৬ সালে এই জেলায় প্রথম পরীক্ষামূলকভাবে থালি বাজারে এনে বোনেদের হাতে তুলে দিয়েছিলাম। প্রথম বছরেই স্পেশাল থালি বোনেদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলে বাজার মাত করে। এই বছর স্পেশাল মিষ্টির মধ্যে থাকছে তুলসি রসগোল্লা। এছাড়াও থাকছে ৬০-৬৫ রকমের কালাকাদ, ক্ষীরকদম্ব, গোপালভোগ, তালশাঁস, আম সন্দেশ ও চকলেট রোল, আমসত্ত্ব রোল, মিহিদানা বরফি, তৃপ্তি ভোগ ইত্যাদি। এই বছরে থালি সাজানো হবে ১৩রকমের মিষ্টি দিয়ে। ১৩ রকম মিষ্টি দিয়ে সাজানো থালি ১৫০ টাকা দাম রাখা হয়েছে। তুলসী পাতার রস দিয়ে তৈরি এই ভেষজ রসগোল্লা মিষ্টি প্রেমীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলবে বলে আশা করেন তিনি। শীতের মরসুম শুরু হতেই সর্দি-কাশিতে অনেকেই ভুগতে শুরু করেন। তাই তুলসী রস সমৃদ্ধ এই রসগোল্লা সর্দি-কাশি নিরাময়ে ওষুধের কাজ করবে। এই ভেষজ দাম রাখা হয়েছে ১৫ টাকা।

শহরের অপর মিষ্টি ব্যবসায়ী সঞ্জয় সাহা ভাইফোঁটা উপলক্ষ্যে এই বছর প্রথম থালি আনার উদ্যোগ নিয়েছেন। তিনি বলেন এবার তারা ৪০-৪৫ রকমের মিষ্টি রেখেছেন বোন বা দিদিদের জন্য। যেমন সীতাভোগ, নলেন গুড়ের তালশাঁস, বেকড বা সেঁকা রসগোল্লা, এবং সুগার ফ্রী ‘নিরা ও অন্যন্যা’ এই পাঁচ প্রকার মিষ্টি দিয়ে থালি সাজিয়েছেন। বেকড রসগোল্লা ভাইফোঁটায় বোনেদের জন্য সারপ্রাইজ। বেকড রসগোল্লার পাশাপাশি বেকড সন্দেশও থাকছে। মিষ্টি বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মত বেশ কয়েক মাস ধরে পরীক্ষা চালিয়ে এই দুই ধরনের মিষ্টি তৈরি করা হয়েছে।  মাটির ছোট ভাড়ে বিশুদ্ধ ক্ষীরের মধ্যে ডোবানো বেকড রসগোল্লা প্রথমবারেই মিষ্টি প্রেমীদের মন জয় করে নেবে এমনটাই আশা রাখছি। একটি বেকড রসগোল্লার দাম ২০ টাকা রাখা হয়েছে। এছাড়াও ৬টাকা থেকে ৩০টাকা দামের মিষ্টান্ন পাওয়া যাচ্ছে তাদের কাছে বলে তিনি জানিয়েছে। অপ্সরা, ক্যাডবেরী স্বাদের ব্ল্যাক ফরেস্ট, বঙ্গেশ্বর, আম ও কমলালেবু স্বাদের রসগোল্লা, ফাইভ-ইন-ওয়ান দই , দইবড়া এবং মুখরোচক নোনতা স্বাদের মুগ ডালের ড্রাই কচুরি ও সিঙ্গারা থাকছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই দোকানে দোকানে মিষ্টি কেনার ভিড় উপচে পড়ছে। জেলার ছাড়া জেলার বাইরে থেকে লোক আসছে মিষ্টি কিনতে। কেউ আবার জেলা থেকে অন্য জেলায় মিষ্টি কিনে নিয়ে যাচ্ছেন।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট