ছটপুজোর আনন্দে মাতোয়ারা শহর, সামিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও


মঙ্গলবার,১৩/১১/২০১৮
338

বাংলা এক্সপ্রেস---

কলকাতা: ছট পুজোর আনন্দে মাতোয়ারা শহর। উপরি পাওনা দু’দিনের ছুটি। এদিন শহরের বিভিন্ন গঙ্গার ঘাটে পুণ্যার্থীদের ঢল। এদিন বিভিন্ন ঘাটে ঘাটে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কথা বলেন পুণ্যার্থীদের সঙ্গে। মহাধূমধামের সাথে প্রত্যেক বছরের ন্যায় এবারও সারা দেশ তথা কলকাতায় পালিত হচ্ছে ছট্ পুজো। কলকাতার ছোট বড় প্রায়ই সব ঘাটেই উপচে পড়ছে ভীড়।

মূলত হিন্দি ভাষাভাষী সম্প্রদায়ের মধ্যে নিয়ম মেনে গঙ্গা স্নানের মাধ্যমে সূর্যাস্তের পরে গঙ্গায় ফল বা সবজির ডালা কে গঙ্গায় পুজো করা ও আবার পরের দিন সকালে সূর্যোদয়ের সময় গঙ্গা মাকে পুজো করা রীতির মধ্যে ছট্ পূজো পালন করা হয়। কথিত আছে দ্রৌপদি এই পুজো করেছিলেন। তার পর থেকে ছট্ মাকে রীতি মেনে ৩দিন র্নিজলা উপোস করে সূর্যাস্তের পর ডালার ফল বা সবজিকে পুজো দিয়ে আবার পরের দিন সকালে সূর্যোদয়ের সময় গঙ্গাঁয় ছট্ মাকেপূজো করে বাড়ির সবার মঙ্গল কামনা করা হয়।

প্রত্যেক বছরের ন্যায় এবছর ও কোলকাতার বিভিন্ন ঘাটের পাশাপাশি উঃকোলকাতার বাগবাজার ঘাটে উপচে পরা ভিড় লক্ষ্য করা যায়। কোন দুর্ঘটনা যাতে না ঘটে তাই প্রশাসনের তরফে নির্দিষ্ট ব্যাবস্হা করা হয়েছে। লালবাজার সূত্রে খবর, ছট পুজোর দিন মূলত গঙ্গার ঘাটগুলিতে থাকছে কড়া পুলিশি নজরদারি। কলকাতা পুলিশের অন্তর্গত ১০৩টি ছোট বড় ঘাটে মোতায়েন আছে প্রায় দু’হাজার পুলিশ। শহরের বিভিন্ন জায়গায় বসানো হয়েছে৩২২টি পুলিশ পিকেট। গঙ্গার ঘাটে বসানো হয়েছে ৭টি ওয়াচ টাওয়ার। রয়েছে ডিজ়াস্টার ম্যানেজমেন্ট গ্রুপের বিশেষ টিম।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট