আবার রাজ্যে নাম বদলের ঘটনা


বুধবার,২১/১১/২০১৮
316

বাংলা এক্সপ্রেস---

মুর্শিদাবাদঃ আবার রাজ্যে নাম বদলের ঘটনা। এবার মুর্শিদাবাদে আবারও অভিযুক্ত সেই সংঘ পরিবার। মুর্শিদাবাদের চক ইসলামপুরের নাম বদল এবার। VHP পরিচালিত স্কুলের ঠিকানায় এই নাম বদলের ঘটনা ঘটেছে। দিন কয়েক আগেই উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরে ঠিক একই ঘটনা দেখা গিয়েছিল। সেখানে স্কুলের অনুমোদন বাতিল হওয়ার ঘটনা ঘটেছিল। স্কুলের নামে ইসলামপুরের জায়গায় ঈশ্বরপুর লেখা হয়েছিল। এবার একই ধরনের ঘটনা মুর্শিদাবাদে। এখানে VHP পরিচালিত স্কুলের ঠিকানায় নাম বদল। সরস্বতী শিশু বিদ্যামন্দিরের ঠিকানায় চক ইসলামপুরের জায়গায় লেখা রয়েছে চক শান্তিনগর, আর গোল বাধল সেখানেই।

বিদ্যালয় পরিদর্শক পূরবী দে বিশ্বাস বলেন যে, তিনি খোঁজ নিয়ে দেখেছেন যে এই স্কুলের কোন রকম ভাবেই কোন অনুমোদন নেই। অনুমোদন ছাড়ায় গত ২৫বছর ধরে স্কুলটি চলছে। প্রথম শ্রেনী থেকে অষ্টম শ্রেনী পর্যন্ত এখানে পড়ানো হয় সেখানে। ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা প্রায় ৭০০জন মতো। প্রথম শ্রেনী থেকে চতুর্থ শ্রেনী পর্যন্ত স্কুল ঘর, অপরটি পঞ্চম শ্রেনী থেকে অষ্টম শ্রেনী পর্যন্ত। এখানে গ্রামের আশেপাশের ছেলেমেয়েরাই পড়তে আসে। স্কুলের আচার্য্য চন্দন কুমার গাইন জানান যে প্রায় ২৫বছর ধরে চক শান্তিনগর বলেই আমরা জেনে আসছি। এটা বিতর্কের কোন বিষয় নয়। স্কুলের সব কাগজপত্রে শান্তিনগর বলেই উল্লেখ রয়েছে।

ইসলামপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি আমিরুল ইসলাম জানান যে, চক শান্তিনগর বলে কোন জায়গা নেই চক ইসলামপুর নামেই পরিচিত। তিনি আরও জানান যে “আমি খবর নিয়ে দেখেছি, উনারা স্কুলের নামটা পরিবর্তন করেছেন। ইসলামপুরের পরিবর্তে তারা শান্তিনগর লিখছেন। এই জন্য আমরা যা ব্যাবস্থা নেওয়ার তা নেব।” একই ঘটনার পূনরাবৃতি এবার মুর্শিদাবাদে। এবারেও সরস্বতী শিশু মন্দিরের ঠিকানা বদলে লেখা হল চক শান্তিনগর। যদিও প্রশাসনের কর্তারা জানিয়েছেন শান্তিনগরের কোন অস্তিত্বই নেই সেখানে। যদিও সম্পূর্ন অনুমোদনহীন এই স্কুল। স্থানীয় বাসিন্দা মানষ চৌধুরী জানান যে, প্রায় ৩০-৩২বছর আগে এখানে একটি ফ্রি কোচিং সেন্টার ছিল। এখানে ছিল বাগান আর সেই বাগানের গাছের নিচে বসে তারা পড়াশোনা করাতেন। পরবর্তীতে তারাই এই স্কুলটি পরিচালনা করতেন। কোচিং সেন্টার যেহেতু গাছের নিচে চলত। শান্তি নিকেতনের আদলে এখানে পড়াশোনা হত তাই হয়তো তখন থেকেই স্কুলের নাম হয় শান্তিনগর।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট