গ্রামের মহিলাদের কাজে লাগিয়ে স্বনির্ভর করার লক্ষ্যে নারায়নগড় ব্লকের মুক্তিধারা প্রকল্প


বৃহস্পতিবার,১৩/১২/২০১৮
966

বাংলা এক্সপ্রেস---

পশ্চিম মেদিনীপুর: মাশরুম চাষের প্রশিক্ষনের মাধ্যমে মেয়েদের স্বনির্ভর করার লক্ষ্যে সাফল্য দেখতে পাচ্ছে নারায়ণগড় ব্লকের “মুক্তিধারা প্রকল্প”। নারায়ণগড় পথসাথিতে আয়োজিত হয় এই বিশেষ প্রশিক্ষণের।প্রায় এক মাস ধরে চলছে এর প্রশিক্ষণ পর্ব ।ব্লকের তিরিশ জন মেয়েকে নিয়ে এই প্রশিক্ষন প্রায় শেষ পর্বে। বেলদা ২ অঞ্চলের কুড়ি জন এবং মকরামপুর ১ অঞ্চলের দশ জন মেয়েকে নিয়ে হয় এই প্রশিক্ষণ শিবির। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের স্বনির্ভর গোষ্ঠী এবং স্বনিযুক্তি দপ্তরের সহায়তায় নারায়ণগড় ব্লক এবং জেলা স্বনির্ভর গোষ্ঠী এবং স্বনিযুক্তি দপ্তরের উদ্যোগে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন প্রশিক্ষণের পাশাপাশি মাশরুম প্রশিক্ষন দেওয়া হয় ব্লকের মেয়েদের।

দাঁতন ব্লকের একটি সংস্থা এই প্রশিক্ষণ দেয়। মেয়েদের সাবলম্বি ও স্বনির্ভর করতে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মুক্তিধারা প্রকল্পের মাধ্যমে এই বিশেষ উদ্যোগ। ১৪ নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে এই শিবিরের। ২১ টি প্যাকেটে বিজ্ঞানসম্মত ভাবে লাগানো হয়েছে মাশরুম বীজ।কিভাবে ছোট থেকে লালন পালন করে বড় করতে হবে কিভাবে কম সময়ে মাশরুম চাষ হবে এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। প্রশিক্ষণে আসা মেয়েরা জানায়- “সরকারিভাবে বিনামূল্যে এই শিবির আয়োজন করা হয়েছে।স্বসহায়ক দল ভিত্তিক তিরিশজনকে এই প্রশিক্ষন দেওয়া হচ্ছে। এই শিবির থেকে কোন এক মেয়ে নিজে থেকে অর্থ উপার্জন করে সাবলম্বী হতে পারবে।”

বেলদা স্ব-সহায়ক দলের সভানেত্রী প্রতিভা জানা জানিয়েছেন-“এখনও মেয়েদের স্বাধীন বলা হলেও ওরা পরাধীন। তাদের সাবলম্বী করতে নিজেদের ‍আর্থিক রুজিরোজগারের জন্য সরকারী ভাবে এই উদ্যোগ। আমরা এই উদ্যোগে খুশি।” এই প্রসঙ্গে নারায়ণগড় ব্লকের বিডিও মানিক কুমার সিংহ মহাপাত্র জানান -“সরকারিভাবে মহিলাদের স্বনির্ভর করার লক্ষ্যে আমরা এই ধরনের উদ্যোগ নিয়েছি যাতে তারা নিজেদের রোজগার নিজেরাই করতে পারে এবং স্বনির্ভর হতে পারে”। ব্লকে কৃষির পরে মহিলাদের স্বনির্ভর করতে এই ধরনের উদ্যোগ ব্লকের মান আরো উন্নত করেছে বলে দাবি বিশিষ্টজনদের।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট