বৈদিক ভিলেজে অনুষ্ঠিত হল ক্রিসমাস ফেস্টিভ্যাল


বৃহস্পতিবার,২৭/১২/২০১৮
475

শুভ বিশ্বাস---

শহরের অন্যতম সেরা রিসোর্ট গুলির মধ্যে বৈদিক ভিলেজ অন্যতম। শীতের আমেজ নিয়ে বড়দিনের আনন্দে গা ভাসিয়েছিল বহু মানুষ। বড়দিন মানেই খাওয়া দাওয়া , আনন্দ, হই হুল্লোড় সাথে দেদার আড্ডা। এদিন বৈদিক ভিলেজ ক্রিসমাস উপলক্ষে সাজানো হয়েছিল। সারাদিন ধরে ক্রিসমাসের আনন্দে গা ভাসিয়েছিল আট থেকে আশি সকলে। এক অন্যরকম মনোরম পরিবেশে এদিন বৈদিক ভিলেজে আয়োজত হয়েছিল ক্রিসমাস ফেস্টিভ্যাল। সবুজ ঘাসের পাশে সাজানো খাবারের নানান পদ, সাথে চলছে ক্রিসমাসের ভায়োলেন মিউজিক।

শীতের রোদ্দুরে আনন্দ নিতে অনেকেই উপস্থিত হয়েছিলেন বৈদিক ভিলেজে। শুধু তাই নয় এক অসাধারন মনোমুগ্ধকর পরিবেশে এদিন সেজে উঠেছিল রাজারহাটের এই নামী রিসোর্টটি। বড়দিনের খুশির মেজাজে বাধভাঙ্গা খুশিতে পরিবারের সাথে অনেকে বড়দিন উপভোগ করেন এদিন। এদিন বড়দিন উপলক্ষে নানান পদের রান্না হয়েছিল।সুস্বাদু খাবারের স্টল সাজানো চারিদিকে, সুইমিং পুলের পাশে এক অসাধারন শোভা মুগ্ধ করেছে সকলের। এছাড়া বড়দিন মানেই কেক , এদিন নানান ধরনের কেক সাথে ক্রিসমাস উপলক্ষে ছিল স্পেশাল মেনু।ক্রিসমাস আনন্দে এদিন মেতে উঠেছিল এই রিসোর্টের অতিথিরাও। সব মিলিয়ে রাজারহাটের কাছে এই রিসোর্টে এক অন্য অনুভুতি এনে দিয়েছিল এই বড়দিনে। এদিন দুপুরে পরিবারের সাথে খাওয়া দাওয়া , আড্ডা ও চুটিয়ে আনন্দ উপভোগ করলেন এই ক্রিসমাসে।

অনেকে অনেক দূর থেকে এসেছিলেন এদিন এই রিসোর্টে, পাড়ি জমিয়েছিলনে পরিবার পরিজন নিয়ে। তারা জানান এর আগে এত সুন্দর ও মনোমুগ্ধকর পরিবেশ আগে কখনো আসেননি। তাই এই বছরের ক্রিসমাস তাদের কাছে খুব স্পেশাল। শুধু তাই নয় এই রিসোর্টের আতিথেয়তা তাদেরকে মুগ্ধ করেছে। শহরের বুকে সবুজ নির্মল পরিবেশে রোদ্দুর গায়ে মেখে বড়দিন উপভোগ করলেন অনেকেই। তবে এদিন বাঙ্গালী রান্নার পদও ছিল যেমন বিভিন্ন ধরনের মাছ ভাজা, ভেজ বিরিয়ানী ও চিকেন বাঞ্চ প্রভৃতি। বাংলার চিরাচরিত ঐতিহ্যের প্রতি এক ধরনের ট্রিবিউট বলা যায় । বৈদিক ভিলেজে এদিন বড়দিন উপলক্ষে ছিল বিশেষ থালির আয়োজন। নিরামিষ ও আমিষ সব পদের খাবার এদিন পরিবেশন করা হয়। নানান জানা অজানা পদের সম্ভার নিয়ে সেজে উঠেছিল এদিন বৈদিক ভিলেজ।

এই ইংরাজী নববর্ষের মহাভোজ সারতে আপনিও পরিবার ও পরিজন নিয়ে পাড়ি জমাতে পারেন এই নামী রিসোর্টটিতে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট