পাওয়ার সাব স্টেশনের কাজ বন্ধ করে দিল আন্দোলনকারীরা,ফের শিরোনামে ভাঙড়


শুক্রবার,২৮/১২/২০১৮
260

সাদ্দাম হোসেন মিদ্দে, ও শুভ বিশ্বাস দক্ষিণ ২৪ পরগণা: দীর্ঘ লড়াই-সংগ্রাম ও তিন জন যুবকের প্রাণহানির পর দফায় দফায় আলোচনার মাধ্যমে শুরু হয়েছিল ভাঙড়ের পাওয়ার গ্রীডের বদলে পাওয়ার সাব স্টেশন তৈরীর কাজ।অশান্ত এলাকায় ফিরে এসেছিল শান্তির পরিবেশ।জোর কদমেই চলছিল কাজ।আবার বন্ধ হয়ে গেল পাওয়ার সাব স্টেশনের কাজ।ফের এলাকা উত্তপ্ত হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে এলাকার মানুষ ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে খবর বুধবার সকালে সরকার এবং জমি,জীবীকা,বাস্তুতন্ত্র ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী কাজ না হওয়ার কারণে আন্দোলনকারীরা শ্রমীকদের কাজে বাধা দেয়।পাওয়ার গ্রীড লাগোয়া মাছিভাঙা,খামারহাইট,উড়িয়াপাড়া,টোনা,শ্যামনগর,পদ্মপুকুর প্রভৃতি গ্রামের মানুষ এদিন জড়ো হয়।তাদের দাবী এলাকার শিক্ষা,স্বাস্থ্য,পরিকাঠামো উন্নয়ণসহ একগুচ্ছ প্রকল্প ঘোষণা করা হয়েছিল।ছিল কিষাণ মান্ডি তৈরির প্রতিশ্রুতি।আন্দোলন কারীদের উপর থেকে পুলিশের রুজু করা সমস্ত ধরণের মামলা তুলে নেওয়ার কথাও চুক্তিতে ছিল।শর্ত সাপেক্ষে পাওয়ার গ্রীডের বদলে শুরু হয়েছিল পাওয়ার সাব স্টেশন তৈরির কাজ।

শর্ত ও প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এলাকার উন্নয়ণ,কিষাণ মান্ডি তৈরী,মামলা প্রত্যাহার কোন কিছুর অগ্রগতি হয়নি বলে জমি কমিটি ও আন্দোলনকারীদের অভিযোগ।সেই কারণেই আবার কাজ বন্ধ করে দিয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।ঘটনার খবর পেয়ে সিআই ভাঙড় উত্তর সার্কেল এবং কাশিপুর থানার ইন্সপেক্টর ইন চার্জের নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।তারা গ্রামবাসীদের নানা ভাবে বোঝানোর চেষ্টা চালিয়েও ব্যার্থ হন।উল্টে পুলিশকে ঘিরে ধরে ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায় এলাকাবাসীর।যে সব শর্ত দিয়ে সাব স্টেশন তৈরির কাজ শুরু করা হয়েছিল তা নিয়ে ফের আলোচনা বসার কথা বলে কাজ বন্ধের ব্যাপারে তারা অনড় থাকে।তাদের কথা আগে উন্নয়ণ মূলক কাজ গুলি করতে হবে ,তুলে নিতে হবে সকল মামলা ,তবেই সাব স্টেশনের কাজ করতে দেওয়া হবে।অন্যথায় কাজ শুরু করতে দেওয়া হবেনা।

ঘটনাস্থলে আসেন পাওয়ার গ্রীড কর্পোরেশন লিমিটেড অব ইন্ডিয়ার আধিকিরীরাও।কাজ বন্ধ করে দেওয়া বিষয়ে তাদের কাছে জানতে চাওয়া হয়।সংবাদ মাধ্যমের কাছে তারা অবশ্য কিছু বলতে অস্বীকার করেন।অপরদিকে আধিকারীকরা গ্রামবাসীদের তোপের মুখে পড়েন।

জমি কমিটির যুগ্ম সম্পাদক মির্জা হাসান ও মোসারেফ হোসেন এবিষয়ে বলেন,যে সমস্ত প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সাব স্টেশন তৈরির কাজ শুরু হয়েছিল তা পূরণ করা হচ্ছেনা।তাই বাধ্য হয়ে এলাকার মানুষ কাজ বন্ধ করে দিয়েছে।ফের বৈঠকে বসে মামলা প্রত্যাহার ও উন্নয়ণ মূলক কাজের অগ্রতির ব্যাপারে কাজ শুরু করতে হবে।তা না হয়ে শুধুমাত্র সাব স্টেশনের কাজ হলে গ্রামবাসীরা তা মানবে না।উন্নয়ণের কাজ ও মামলা প্রত্যাহার না হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য কাজ বন্ধ করে দেওয়া হবে বলেও তাদের হুশিয়ারী।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় তিনদিনের সফরে দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলাতে অবস্থান করছেন।বুধবার তাঁর সুন্দরবনের নামখানায় প্রশাসনিক বৈঠক করার কথা ছিল।সেই কারণে ভাঙড়ের রাজনৈতিক নেতৃত্ব এবং পুলিশ ও প্রশাসনের আধিকারীকরা নামখানার উদ্দেশ্য রওনা দেন।এরই মাঝখানে সাব স্টেশনের কাজ ফের থমকে যাওয়ার খবরে অস্বস্তি বেরেছে।কাজ বন্ধের খবর পৌঁছায় মুখ্যমন্ত্রীর কানে।প্রশাসনিক বৈঠক থেকেই তিনি ভাঙড় সমস্যার দ্রুত সমাধান করার জন্য জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট