স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে শীতবস্ত্র প্রদান সাংসদ সন্ধ্যা রায়ের


শনিবার,১২/০১/২০১৯
121

কার্ত্তিক গুহ---

পশ্চিম মেদিনীপুর: স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন উপলক্ষে বিবেকানন্দ বিদ্যালয় এর সুবর্ন জয়ন্তী উদযাপন এবং একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে আয়োজিত শীতবস্ত্র প্রদান করেন সাংসদ সন্ধ্যা রায়।কংসাবতী তটস্থ মায়া মাখানো মেদিনীপুর শহরে এক প্রান্তে অবস্থিত বিবেকানন্দ শিক্ষা নিকেতন (উ: মা:) এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং সুবর্ন জয়ন্তী উদযাপন হলো আজ । ১৯৬৯ খ্রিস্টাব্দে র আজকের দিনে সমাজের শিক্ষা র আলো ছড়িয়ে দিতে উদ্যোগী হয়ে যে শিশুটিকে ভূমিষ্ট করেছিলেন গুটি গুটি পায়ে আজ সেই শিশু ৫০ বছরে পদার্পণ করলো। সমাজ এর সর্বস্তরের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ফুলে ফলে পল্লবীত হয়ে তার শাখাপ্রশাখা ছড়িয়ে পড়েছে আকাশে বাতাসে। সৃষ্টি করেছে নুতন যৌবন এর।

আজ বিদ্যালয় এর সুবর্ন জয়ন্তী বর্ষ উৎসব এর সূচনা করেন মেদিনীপুর লোকসভার সাংসদ তথা অভিনেত্রী সন্ধ্যা রায়। মানুষকে জাতপাতের উর্দ্ধে উঠে মান হুঁস হয়ে এই বিদ্যালয়টিকে যাতে আরো সুন্দর করা যায় তার চেষ্টায় ব্রতী হ‌ওয়ার আহ্বান জানান সাংসদ। আজ ভারতমাতার এক মহান সন্তান এর জন্মদিন, যিনি বলতে পেরেছিলেন যে আমাদের ভারতীয় সমাজে ধর্মীয় স্থানে যাওয়ার জন্য সময় নষ্ট না করে বিদ্যালয়ে যাওয়া শ্রেয়। যিনি বলতে পেরেছিলেন গীতা পাঠ অপেক্ষা ফুটবল খেলা শ্রেয়। আজ সেই মহান সন্তান স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন। বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আজ ভারত মাতার দুই সন্তান এর আবক্ষ মূর্তি র উন্মোচন করা হয়। এক সনাতন উদার ধর্মের প্রতিষ্ঠাতা স্বামী বিবেকানন্দের, অপর টি নারী জাগরণের পথিকৃৎ , বাংলাভাষার শ্রষ্টা ঈশ্বর চন্দ্র বিদ্যাসাগর মহাশয়ের।

অনুষ্ঠান টি দুইদিন ধরে চলবে। উপস্থিত ছিলেন সাংসদ সন্ধ্যা রায়, কাউন্সিলর হিমাংশু মাইতি, স্বামী দিব্যানন্দজী মহারাজ, অজয় কুমার সাহু, ডঃ নির্মলেন্দু দে, পিন্টু সামন্ত সহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ। সাংসদ সন্ধ্যা রায় তার সাংসদ কোটার অর্থ থেকে বিদ্যালয় এর নুতন শ্রেনী কক্ষের জন্য এবং ছাত্রীদের জন্য ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেসিন এর ৭ লক্ষাধিক টাকা বরাদ্দ করেন। অপরদিকে স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন উপলক্ষে মির্জাপাড়া কামারপাড়া দেশকমিটির উদ্দোগে গরীব মানুষদের কে শীতবস্ত্র বিতরণ এবং মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক ছাত্রছাত্রীদেরকে বিশেষ সম্বর্ধনা জ্ঞ্যাপন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় পাঁচ শতাধিক মানুষকে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাংসদ সন্ধ্যা রায়, বিধায়ক মৃগেন্দ্রনাথ মাইতি, আশীষ চক্রবর্ত্তী, স্থানীয় কাউন্সিলর রাধারাণী বেরা সহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট