তৃণমূলের ব্রিগেড সমাবেশকে নীতিহীন তামাশার সমাবেশ বলে আখ্যা দিলেন সীতারাম ইয়েচুরি


রবিবার,২০/০১/২০১৯
369

বাংলা এক্সপ্রেস---

শনিবার ইসলামপুরের দারিভিট কালীনগর কলোনী মাঠে ডিওয়াইএফআইয়ের সমাবেশে উপস্থিত হয়ে তৃণমূলের ব্রিগেড সমাবেশকে নীতিহীন তামাশার সমাবেশ বলে আখ্যা দিলেন সিপিআইএমের সর্বভারতীয় সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। এছাড়াও ইয়েচুরি বলেন, আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি ব্রিগেড সমাবেশ থেকে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মোদী হঠাও দেশ বাঁচাও, মমতা হঠাও বাংলা বাঁচাও য়ের ডাক দেওয়া হবে।

মহাভারতের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে ইয়েচুরি এদিন কৌরব বংশের দুর্যোধন ও দুঃশাসনের সাথে নরেন্দ্র মোদী ও অমিত শাহের তুলনা করে কটাক্ষ করেন। পাশাপাশি মহাভারতের লড়াইয়ে পাণ্ডবদের দ্বারা কৌরব বংশের ধংসের মতো মোদী-শাহের অবস্থা হবে বলে জানান। এছাড়া পেছন থেকে মোদী-শাহকে পরিচালনা করা আরএসএসকে মহাভারতের শকুনি মামার সাথে তুলনা করেন ইয়েচুরি। এক যাত্রীবাহী বাসে পকেটমারী হবার ঘটনার উল্লেখ করে মোদী-মমতাকে পকেটমার বললেন সিপিএমের সর্বভারতীয় সম্পাদক ইয়েচুরি।

ইয়েচুরি বলেন, বাসে পকেটমারী হয়ে গেলে কন্ডাক্টর চালককে বলে বাস থামিয়ে ওই যাত্রীকে নামিয়ে দিতে থাকলে সেসময় এক ব্যক্তি এসে ওই যাত্রীর বাড়ি যাবার ভাড়ার টাকা দিয়ে দেন। এই মহানুভবতা দেখানো ব্যক্তিই আসলে পকেটমার আর সেটা হলো মোদী-মমতা। সাড়ে চার বছর দেশ ও রাজ্যকে লুটে শেষ করে নির্বাচনের সামনে ললিপপ দিচ্ছেন মোদী-মমতা। এছাড়াও ইয়েচুরি এদিন রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্র থেকে গত বারের চেয়ে বেশি ভোটে মহম্মদ সেলিমকে জিতিয়ে দিল্লি পাঠানোর আহ্বান জানান।

যদিও দারিভিট ইস্যুতে সমাবেশ করতে এসে শিক্ষকের দাবীতে দারিভিটে ছাত্র আন্দোলনের জেরে পুলিশের গুলিতে নিহত ছাত্রদের কোনও উল্লেখই করলেন না সিপিএমের সর্বভারতীয় সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। তবে রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ মহম্মদ সেলিম দারিভিটের ঘটনাকে তৃণমূল আরএসএসের পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র বলে দাবী করেন। পাশাপাশি সেলিম বলেন, উত্তর দিনাজপুরের সাংসদ হিসাবে আমি গর্ব অনুভব করি যে উত্তর দিনাজপুর বাসী এই ষড়যন্ত্রকে নস্যাৎ করে দিতে মহরম, ঈদ দুর্গাপূজা, কালি পুজো সাড়ম্বরে একসাথে পালন করেছে।

এছাড়াও উসকানিমূলক মন্তব্যের প্রচার না করার জন্য এদিন সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদেরও ধন্যবাদ জানিয়েছেন সেলিম। এছাড়াও এদিন সেলিম বলেন, মোদী-মমতা পয়সার এপিঠ ওপিঠ। রাফাল নিয়ে মমতা কিছু বলবেন না অন্যদিকে সারদা নারদা নিয়ে মোদী কিছু বলবে না। বাম আমলে বাংলায় বিজেপি পা রাখতে পারেনি কিন্তু বাংলায় মমতাই বিজেপিকে জায়গা করে দিয়েছে। আর এসবের সেটিং করে দেন মুকুল রায়। এদিনের সমাবেশে হাজির ছিলেন মানব মুখার্জি, ডিওয়াইএফআইয়ের রাজ্য সভাপতি মীনাক্ষী মুখার্জী, এসএফআইয়ের রাজ্য সম্পাদক সৃজন ভট্টাচার্য, সর্বভারতীয় সম্পাদক অভয় মুখার্জী সহ জেলার নেতৃবৃন্দ।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট