নতুন আবিষ্কার “গ্রাফিন”,তাও জৈব অভঙ্গুর প্লাস্টিক থেকে, জাতীয় সন্মান অধ্যাপক নন্দগোপালের


শুক্রবার,২৫/০১/২০১৯
373

বাংলা এক্সপ্রেস---

পশ্চিম মেদিনীপুর: বিজ্ঞানের নবতম আবিষ্কার। তৈরি গ্রাফিন। তাও আবার প্লাস্টিক থেকে। ইতিহাসে পাতায় ঠাঁই করে নিতে চলেছে নারায়ণগড় ব্লকের কুনারপুর গ্রামপঞ্চায়েতের চকগনকা গ্রাম। এই গ্রামেরই ছেলে অধ্যাপক এবং গবেষক নন্দ গোপাল সাহু ব‍্যবহৃত প্লাস্টিক প্রক্রিয়াকরণে নয়া আবিষ্কারে দেশকে দূষণমুক্ত করার পথ দেখাচ্ছেন। বর্তমানে তিনি উত্তরাখণ্ড রাজ‍্যের নৈনিতালের কুমায়ন বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের একজন অধ্যাপক। প্লাস্টিক ও পলিথিন থেকে দূষণ নিরোধক একটি আবিষ্কারের জন্য তিনি জাতীয় স্তরের স্বীকৃতি পেতে চলেছেন।

আগামী ২৪ জানুয়ারীতে দেশের উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডুর হাত থেকে বিঞ্জান গবেষণার উপর বিশেষ সাফল্যের জন্য জাতীয় স্তরের একটি পুরষ্কার নেন। প্লাস্টিক দূষণের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে তিনি দীর্ঘদিন ধরে ভারত সরকারের পেট্রোলিয়াম দফতরের সহযোগিতায় মিনিস্ট্রি অফ কেমিক্যাল ও ফার্টিলাইজেশন বিষয় নিয়ে গবেষণা করেছেন। তার ই স্বীকৃতি অবশেষে তিনি পেতে চলেছেন। নারায়ণগড় ব্লকের প্রত‍্যন্ত এলাকা কুনারপুর উচ্চবিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও ভদ্রকালি স্কুল থেকে উচ্চমাধ্যমিক উত্তীর্ণ হয়েছেন তিনি।

তারপরে বিদ‍্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাম্মানিক স্নাতক ও বিঞ্জান বিষয়ে স্নাতকোত্তরে উত্তীর্ণ হওয়ার পর পড়াশোনা করেন খড়গপুর আইআইটি তে। সেখান থেকে ম‍্যাটেরিয়াল সায়েন্সে পিএইচডি করেন। তারপরে চলেযান বিদেশে, গবেষণার কাজে তিনি নয় বছর ব‍্যস্ত ছিলেন। ২০১৩ সালে দেশে ফিরে প্লাস্টিক দূষণ দুর করার পদ্ধতি বার করার চেষ্টা করেন। তিনি দূষিত বর্জ‍্য প্লাস্টিক কাজে লাগিয়ে অতি মূল্যবান ‘গ্রাফিন’ তৈরি করেছেন। যা কিনা পরিবেশ দূষণ রোধে অত‍্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারে।

এই গ্রাফিন তৈরি হয়েছে দৈনন্দিন কাজে ব্যবহৃত প্লাস্টিক থেকে পেট্রোলিয়াম জাতীয় তেল ও অব‍্যবহৃত প্লাস্টিক বোতল ও পলিথিন পুড়িয়ে। এই আবিষ্কার শুধু ভবিষ্যত প্রজন্মকে রক্ষা করা নয়, বিশ্বের দুয়ারে এক অভিনব চিন্তার ছাপ ফেলতে চলেছে। এই ব‍্যপারে অধ্যাপক নন্দগোপাল সাহু জানিয়েছেন,”শুধুমাত্র গবেষণার জন্য গবেষণা নয়। কিছু গবেষণার কাগজে লেখা নয়। সমাজের জন্য কিছু করার লক্ষ্য নিয়ে এই বিষয়ে গবেষণা শুরু করেছি।” তিনি বলেছেন ,”প্লাস্টিকের দূষণ থেকে পরিবেশ কে রক্ষা করার জন্য এই গবেষণা করেছি।” তাঁর কথায় বর্জিত প্লাস্টিক ও পলিথিন পুনর্ব‍্যবহার যোগ‍্য করে তোলার লক্ষ্যে এই গবেষণা করা হয়েছে।অ্যাথলেটিকস এর পর বিজ্ঞান।নারায়ণগড় ব্লক সাজছে নতুন আঙিনায়।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট