গ্রামীণ সম্পদ কর্মীদের নবান্ন অভিযানকে ঘিরে ধুন্ধুমার


শুক্রবার,১৫/০২/২০১৯
745

সাদ্দাম হোসেন মিদ্দে---

গ্রামীন সম্পদ কর্মীদের নবান্ন অভিযান কে ঘিরে ধুন্ধুমার কান্ড। সারা রাজ্যের প্রায় ৩৩,০০০গ্রামীন সম্পদ কর্মীরা আজ মাওলানা কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে কোলকাতার রামলীলা ময়দান থেকে মিছিল করে ধর্মতলায় জমায়েত হয়। সেখান থেকে তারা নবান্নের দিকে যাচ্ছিল মুখ্যমন্ত্রীকে বিভিন্ন দাবি-দাওয়া বিষয়ে স্মারকলিপি দেয়ার জন্য।

গ্রামীন সম্পদ কর্মীদের মূল দাবি গুলি হল -সরকারি নিয়োগ পত্র দিতে হবে, চাকরি স্থায়ীকরণ করতে হবে, মাসে অন্তত ২২ দিন কাজ দিতে হবে এবং নুন্যতম ৬,০০০ হাজার টাকা মাসিক বেতনের ব্যবস্থা করতে হবে। বর্তমানে গ্রামীণ সম্পদ কর্মীরা মাসে মাত্র ৮ দিন কাজ পান এবং রোজ দেওয়া হয় মাত্র ১৫০ টাকা। যা একজন অদক্ষ শ্রমিকের থেকেও কম।

আজকে নবান্ন অভিমুখী হাজার হাজার কর্মীদের বাধা দেয় কলকাতা পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় গ্রামীন সম্পদ কর্মীদের রাজ্য সভাপতি ইলিয়াস আলমকে। পুলিশের লাঠিচার্জে কয়েকজন গ্রামীণ সম্পদ কর্মী আহত হয়। কয়েকজনের মাথা ফেটে যায় বলেও অভিযোগ। গ্রামীন সম্পদ কর্মীদের রাজ্য কমিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যতক্ষণ না সরকার আমাদের ন্যায্য দাবিসমূহ মেনে নিচ্ছে এবং রাজ্য সভাপতি ইলিয়াস আলমকে না ছাড়ছে ততক্ষণ আমরা কলকাতার রাজপথে ধরনা চালিয়ে যাব।

মাওলানা কামরুজ্জামান সাহেব গ্রামীণ সম্পদ কর্মীদের ন্যায্য দাবী সমূহের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে এদিন নবান্ন অভিযানের সামিল হন।গ্রামীণ সম্পদ কর্মীদের উপর পুলিশের লাঠিচার্জের খবর পেয়ে সেখানে যান সিপিআইএম সাংসদ মহাম্মদ সেলিম। মহম্মদ সেলিম এর আগে গ্রামীণ সম্পদ কর্মীদের অভাব অভিযোগের কথা সংসদের অধিবেশন তোলেন।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট