প্রয়ত অভিনেত্রী কনিকা মজুমদার


শুক্রবার,২২/০২/২০১৯
3553

বাংলাএক্সপ্রেস, ওয়েবডেস্কঃ মারা গেলেন কনিকা মজুমদার। সবার অজান্তে, সবার অলক্ষ্যে ৮৪ বছর জীবন অতিবাহিত করার পর পরলোকে গমন করলেন এদিন। কর্মজীবনে তিনি কাজ করেছেন সত্যজিৎ রায়, মৃণাল সেনের মতো পরিচালকের সঙ্গে। রবীন্দ্রনাথের গল্পের নায়িকা তিনি। শেষ বয়সে ‘অস্তরাগ’ বৃদ্ধাশ্রমেই দিন কাটিয়েছেন তিনি।বাংলাদেশের ময়মনসিংহে ১৯৩৫ সালে জন্ম হয় কনিকা মজুমদারের। ব্রাহ্ম পরিবারের মেয়ে ছিলেন। অল্প বয়স থেকেই তাঁর সৌন্দর্য্য ও চেহারার আভিজাত্য নজর কেড়েছিল অনেক পরিচালকেরই। তবে পরিবারের আপত্তিতে অভিনয়ে জগতে আসতে পারেননি বেশ কিছুদিন। কিন্তু, এভাবে তো আলোকে লুকিয়ে রাখা যায় না।
তাঁর সৌন্দর্য্য চোখে পড়ে যায় সত্যজিৎ রায়ের। পরিচালক যেখানে সত্যজিৎ, সেখানে আপত্তির কোনও অবকাশই থাকে না। অবশেষে ১৯৬১ সালে সত্যজিৎ রায়ের ছবি ‘তিনকন্যা’-র ‘মণিহারা’ গল্পে নায়িকা হলেন কনিকা। সেই বছরেই কাজ করলেন মৃণাল সেনের ‘পুনশ্চ’ ছবিতে। এক বছরে দুটো ছবিতেই প্রশংসা অর্জন করলেন কনিকা দেবী। এরপর ‘অগ্নিশিখা’,’চিড়িয়াখানা’, ‘বসন্তবিলাপ’, ‘বিলম্বিত লয়’, ‘হার মানা হার’,’রানুর প্রথম ভাগ’-র মতো একের পর এক ছবির মধ্যে দিয়ে এগিয়ে গেছেন কনিকা মজুমদার। উত্তমকুমারের সঙ্গে ৬ টি ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। সঙ্গে বেতার ও মঞ্চেও নিজের প্রতিভার ছাপ রেখে গেছেন।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট